বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > উচ্চ মাধ্যমিকে ই-টুকলি রুখতে কড়া ব্যবস্থা সংসদের, পোস্টার পড়বে পরীক্ষাকেন্দ্র
উচ্চ মাধ্যমিকে টোকাটুকি রুখতে ব্যবস্থা নেবে সংসদ। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)

উচ্চ মাধ্যমিকে ই-টুকলি রুখতে কড়া ব্যবস্থা সংসদের, পোস্টার পড়বে পরীক্ষাকেন্দ্র

  • পরীক্ষার প্রথমার্ধ সকাল ১০ থেকে দুপুর ১২টা ৪৫ পর্যন্ত কেউ পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে বেরোতে পারবে না। এমনকি শৌচালয়ও যাওয়া যাবে না।

আগামী ২ এপ্রিল থেকে রাজ্যজুড়ে শুরু হচ্ছে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। শেষ হবে ২৭ এপ্রিল। ইতিমধ্যেই পরীক্ষার তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে উচ্চমাধ্যমিকে শিক্ষা সংসদ। কারণ, সংসদের ইতিহাসে এই প্রথম বার কোভিড বিধি মেনে হোম সেন্টার অর্থাৎ পরিক্ষার্থীদের নিজের স্কুলেই পরীক্ষা হতে চলেছে। যেহেতু নিজেদের স্কুলেই পড়ুয়াদের পরীক্ষার আয়োজন করা হচ্ছে, সেজন্য কেউ যাতে পরীক্ষা ব্যবস্থাপনার উপর কোনওভাবে অভিযোগের আঙুল কিংবা প্রশ্ন তুলতে না-পারে, সেজন্য সব দিক দিয়ে সতর্ক উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। তাই মোবাইল নিয়ে যাতে কেউ পরীক্ষাকেন্দ্রের মধ্যে টুকলি (ই-টুকলি) করতে না-পারে, তার জন্য কড়া পদক্ষেপ করেছে সংসদ।

কীভাবে ই-টুকলি রুখবে সংসদ? তার দাওয়াই বাতলে দিয়েছেন উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সচিব তাপস কুমার মুখোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, ‘পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়াও পরীক্ষায় বৈদ্যুতিন সরঞ্জামের দুর্ব্যবহার রুখতে ‘মোবাইল পোস্টার’ তৈরি করা হয়েছে। সেটি পরীক্ষা কেন্দ্রের মূল ফটকে সাঁটিয়ে দিতে হবে। পরিচয়পত্র ছাড়া কেউ পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতে পারবে না। তাছাড়া, অ্যাডমিট কার্ড বিতরণের সময়, পরিক্ষার্থীদের সতর্ক করে দিতে হবে, যাতে কেউ কোনও অসৎ উপায় অবলম্বন না-করে বা মোবাইল সঙ্গে না-আনে।’

শুধু তাই নয়, পরীক্ষার প্রথমার্ধ সকাল ১০ থেকে দুপুর ১২টা ৪৫ পর্যন্ত কেউ পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে বেরোতে পারবে না। এমনকি শৌচালয়ও যাওয়া যাবে না। এই মর্মে স্কুলগুলিতে নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও জানিযেছেন, ‘শুধু মোবাইলই নয়, স্মার্ট ওয়াচ, ব্লুটুথ, বৈদ্যুতিন ক্যালকুলেটর বা ইন্টারনেট সংযোগ আছে এমন যে কোনও সরঞ্জাম নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যদি কোনও পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে এমন কিছু ধরা পরে, সেক্ষেত্রে প্রথাগতভাবে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে সংসদ।’

বন্ধ করুন