বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নবান্ন থেকে জবাব মেলেনি, তাই পুজোর আগে চলবে না লোকাল ট্রেন, জানাল রেল
শিয়ালদহ স্টেশন। ফাইল ছবি
শিয়ালদহ স্টেশন। ফাইল ছবি

নবান্ন থেকে জবাব মেলেনি, তাই পুজোর আগে চলবে না লোকাল ট্রেন, জানাল রেল

  • রাজ্যের এই নীরবতার জন্যই ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি শুরু করতে পারছেন না রেল। রাজ্য সরকারের সঙ্গে বৈঠকে ট্রেন চালানোর বিধিনিয়ম ঠিক হওয়ার কথা।

পশ্চিমবঙ্গে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে রাজ্য সরকার কোনও আগ্রহ দেখাচ্ছে না বলে আগেই রেলের তরফে অভিযোগ করা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার জানিয়ে দেওয়া হল, রাজ্য সরকার জবাব না দেওয়ায় পুজোর আগে চলবে না লোকাল ট্রেন। একথা জানিয়েছেন শিয়ালদহ ডিভিশনের বিভাগীয় রেল আধিকারিক এসপি সিং।

এদিন তিনি জানান, গত মঙ্গলবার লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য রাজ্যের সঙ্গে বৈঠকে বসার প্রস্তাব দেওয়া হলেও সেই চিঠির জবাব বৃহস্পতিবারও রেলের দফতরে এসে পৌঁছয়নি। রাজ্যের এই নীরবতার জন্যই ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি শুরু করতে পারছেন না রেল। রাজ্য সরকারের সঙ্গে বৈঠকে ট্রেন চালানোর বিধিনিয়ম ঠিক হওয়ার কথা। সেই বিধি চূড়ান্ত হলে তা কার্যকর করতে রেলের অন্তত ১০ দিন লাগবে।

রেলকর্তাদের একাংশের মতে, পুজোর মুখে পশ্চিমবঙ্গে করোনা সংক্রমণ রোজ বাড়ছে। আর পরিস্থিতি সব থেকে খারাপ কলকাতা ও লাগোয়া জেলাগুলিতে। উত্তর ২৪ পরগনা জেলা কলকাতাকে টেক্কা দিচ্ছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব বর্ধমান, নদিয়া, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুরের মতো জেলাও পিছিয়ে নেই। ফলে ট্রেন চালালে সংক্রমণ আরও বাড়বে বলে একপ্রকার নিশ্চিত রাজ্য সরকার। সেক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে পরিস্থিতি। তাই লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে কোনও উচ্চবাচ্য করছে না তারা।

গত মার্চ থেকে বন্ধ কলকাতা ও শহরতলির লোকাল ট্রেন পরিষেবা। মুম্বইয়ে লোকাল ট্রেন পরিষেবা শুরু হলেও কলকাতায় তা শুরু হয়নি। সম্প্রতি লোকাল ট্রেন চালুর দাবিতে শহরতলিতে বিভিন্ন জায়গায় স্পেশ্যাল ট্রেন আটকে বিক্ষোভ দেখায় জনতা। যার জেরে ফের দেখা দেয় লোকাল ট্রেন চালু হওয়ার সম্ভাবনা। কিন্তু রাজ্যের নীরবতায় সেই সম্ভাবনায় জল পড়ল বলে দাবি রেলের।

বন্ধ করুন