বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ভেলোরের সঙ্গে তুলনা করে কলকাতাকে হেয় করা হচ্ছে, আপত্তি চিকিৎসক কুণাল সরকারের
কুণাল সরকার
কুণাল সরকার

ভেলোরের সঙ্গে তুলনা করে কলকাতাকে হেয় করা হচ্ছে, আপত্তি চিকিৎসক কুণাল সরকারের

  • গত ১৭ জানুয়ারি পায়ে গুরুতর আঘাত পেয়ে আনন্দপুরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বারাকপুরের বাসিন্দা বিকাশচন্দ্র মণ্ডল।

‌সম্প্রতি রাজ্যের স্বাস্থ্য কমিশন ভেলোরের বিল দেখিয়ে কলকাতার বিভিন্ন হাসপাতালকে তাদের খামতি মেটানোর পরামর্শ দিয়েছে। কিন্তু যেভাবে কলকাতার হাসপাতালের সঙ্গে ভেলোরের হাসপাতালের তুলনা টানা হয়েছে, তা অনভিপ্রেত বলেই মনে করছেন বিশিষ্ট চিকিৎসক কুণাল সরকার। নেটদুনিয়ায় এই নিয়ে সরব হয়েছেন তিনি।

এই নেট মাধ্যমে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে চিকিৎসক জানিয়েছেন, দুটি হাসপাতালের সঙ্গে বিলের তুলনা করে কলকাতার হাসপাতালকে হেয় করা হচ্ছে। একইসঙ্গে তাঁর প্রশ্ন, ভবিষ্যতে কলকাতায় স্নায়ুর অস্ত্রোপচারের সঙ্গে কী দক্ষিণের চুলকাটার তুলনা করবেন। যে ঘটনা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য কমিশনের এই পর্যবেক্ষণ, সেই প্রসঙ্গ তুলে চিকিৎসক কুণাল সরকার জানান, দুর্ঘটনার পর বিকাশ চন্দ্র মণ্ডলকে সুস্থ করতে কলকাতার হাসপাতালে চার বার সফল অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল। সেই অস্ত্রোপচারের খরচ মাথায় রাখতে হবে। দুর্ঘটনাগ্রস্ত কোনও রোগীর প্রাথমিকভাবে একাধিক পরীক্ষা করতে হয়। কলকাতার হাসপাতালে বিকাশের পায়ের সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে, সেটা ভুলে গেলে চলবে না। তাঁর মতে, ভেলোরের হাসপাতালের সঙ্গে সঙ্গত তুলনা হলে আপত্তি নেই। কিন্তু যেভাবে তুলনা করা হচ্ছে, তা অনভিপ্রেত।

উল্লেখ্য, গত ১৭ জানুয়ারি পায়ে গুরুতর আঘাত পেয়ে আনন্দপুরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বারাকপুরের বাসিন্দা বিকাশচন্দ্র মণ্ডল। ১০ দিনে বিকাশের চিকিৎসার খরচ হয়েছিল ৪ লাখ ৯৭ হাজার টাকা। কিন্তু বিকাশের পায়ে গ্যাংগ্রিন হয়ে যাওয়ায় তা কেটে বাদ দেওয়ার আশঙ্কা করছিলেন চিকিৎসকরা। শেষ পর্যন্ত হাসপাতালের বন্ডে সই করে ভেলোর চলে যান বিকাশ। সেখানে তাঁর চিকিৎসা হয়। ১৯ দিনের চিকিৎসার পর বিকাশের পা কেটে বাদ দেওয়ার প্রয়োজন হয়নি। খরচ পড়েছে ১ লাখ ১৯ হাজার টাকা। বিকাশ ক্র‌্যাচ নিয়ে হাঁটলেও পুরোপুরি সুস্থ। তখনই এই বিষয়টি স্বাস্থ্য কমিশনের নজরে আনা হয়।

বন্ধ করুন