বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনায় মৃত পরিবারের কতজন ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন,সরকারের কাছে শ্বেতপত্র দাবি বিজেপির
শমীক ভট্টাচার্য

করোনায় মৃত পরিবারের কতজন ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন,সরকারের কাছে শ্বেতপত্র দাবি বিজেপির

পিএম কেয়ার্স ফান্ড থেকে রাজ্যের জন্য যে অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে, সে বিষয়েও মুখ খোলেন বিজেপি নেতা।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত হয়েছে, এমন কতজন পরিবার রাজ্য সরকারের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন, এবার সেই প্রশ্ন তুলল বিজেপি। রাজ্য বিজেপির তরফে দাবি করা হয়েছে, রাজ্য সরকারের তরফে এই বিষয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশ করা হোক।

রাজ্যে করোনা পরিস্থিতির কথা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে রাজ্য সরকারের ভূমিকাকে কার্যত প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিলেন বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য। এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে শমীকবাবু জানান, ‘‌রাজ্যে যত মানুষ করোনায় মারা গেছেন, তার থেকে অনেক কম সংখ্যক মানুষ সরকারের কাছে ক্ষতিপূরণের আবেদন করেছেন। আবেদন করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র মৃত পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়নি। সেইজন্য এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, করোনায় যারা মারা যাচ্ছেন, তাঁদের ৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। সরকারি চিকিৎসক নার্স স্বাস্থ্য কর্মীরা যারা চিকিৎসা করতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের ১ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। কতজনকে এই ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে, সেটা সরকারের কাছে জানতে চাই। স্বাস্থ্য দফতর এই বিষয়ে বিবৃতি দিয়ে সেকথা মানুষের কাছে স্পষ্ট করেনি।’‌ করোনায় আক্রান্ত হয়ে কোনও সরকারি কর্মী মারা গেলে তাঁর পরিবারের সদস্যকে চাকরি দেওয়ার কথা বলেছিল রাজ্য সরকার। সরকারের দেওয়া ওই প্রতিশ্রুতি পালন কতটা হয়েছে, তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন শমীকবাবু। তাঁর কথায়, ‘‌একটি পরিবারকে চাকরি দেওয়া হয়েছিল। তা নিয়ে আমাদের কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু একটি বা দুটি ঘটনাকে সামনে রেখে সরকার শুধুমাত্র প্রতিশ্রুতির জাল বুনে যাচ্ছে।’‌

একই সঙ্গে পিএম কেয়ার্স ফান্ড থেকে রাজ্যের জন্য যে অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে, সেবিষয়েও মুখ খোলেন বিজেপি নেতা। এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, পিএম কেয়ার্স ফান্ড থেকে রাজ্যে জন্য কত অক্সিজেন প্লান্ট করা হয়েছে, ভেন্টিলেটরের জন্য যে অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে, তা থেকে কতগুলি ভেন্টিলেটর প্রতিস্থাপন করা গিয়েছে, সেকথা সরকার স্পষ্ট করে জানাক।

বন্ধ করুন