বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দরকারে বাড়ি ভেঙে ফেলব, অর্পিতার ‘ইচ্ছে’ নিয়ে মুখ খুললেন ফিরহাদ
অর্পিতার ইচ্ছে বাড়ি। 

দরকারে বাড়ি ভেঙে ফেলব, অর্পিতার ‘ইচ্ছে’ নিয়ে মুখ খুললেন ফিরহাদ

  • কলকাতার কসবা এলাকায় ৯৫ রাজডাঙা মেইন রোডে ‘ইচ্ছে’ নামে একটি বাড়ির খোঁজ পেয়েছে ইডি। গোয়েন্দাদের দাবি, এই বাড়ির মালিক অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। বাড়িটি থেকে প্রোডাকশন হাউজ চালাতেন তিনি।

কসবার রাজডাঙায় অর্পিতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ‘ইচ্ছে’-র বিরুদ্ধে ওঠা কর ফাঁকির অভিযোগের তদন্তের নির্দেশ দিলেন পুর মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। শনিবার তিনি বলেন, বেআইনি প্রমাণিত হলে হাইকোর্টের নির্দেশ অনুসারে ভেঙে ফেলব।

কলকাতার কসবা এলাকায় ৯৫ রাজডাঙা মেইন রোডে ‘ইচ্ছে’ নামে একটি বাড়ির খোঁজ পেয়েছে ইডি। গোয়েন্দাদের দাবি, এই বাড়ির মালিক অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। বাড়িটি থেকে প্রোডাকশন হাউজ চালাতেন তিনি। এছাড়া বিয়েবাড়ি ও শ্যুটিংয়ের জন্যও ভাড়া দেওয়া হত। যদিও তার কিছুই পুরসভা জানে না বলে দাবি পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

পুরসভার দাবি, তাদের নথি অনুসারে ১০ নম্বর দাগে ২ কাঠা ৮ ছটাক জায়গার ওপর রয়েছে একটি বসত বাড়ি। তার পাশে ১১ ও ১২ নম্বর দাগ দুটি খালি জমি। কিন্তু বাস্তবে গোটাটা জুড়েই তৈরি হয়েছে ‘ইচ্ছে’। পুরসভার হিসাব অনুসারে এখন বাড়িটির থেকে বাৎসরিক ২,৩৫৬ টাকা কর আদায় করা হয়। কিন্তু পুরো বাড়ি হিসাব করলে কর হওয়ার কথা ১.৭৫ লক্ষ টাকা।

এদিন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, ওই বাড়ির ব্যাপারে পুরসভার কাছে বিস্তারিত তথ্য ছিল না। বাড়ি বেআইনি হলে হাইকোর্টের নির্দেশ অনুসারে পুরসভা ভেঙে ফেলবে। এব্যাপারে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

ওদিকে ইডির দাবি, ২০১৩ সাল থেকে অর্পিতা এখানে প্রোডাকশন হাউজ চালাচ্ছেন। তখন বাড়িটি ছিল পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নামে। ২০১৪ সালে বাড়িটি অর্পিতাকে হস্তান্তর করেন পার্থ।

 

বন্ধ করুন