তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন। ফাইল ছবি
তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন। ফাইল ছবি

'উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে রাজ্যকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় দল'

  • এই ২ চিঠি নিয়ে শান্তনু সেন বলেন, ‘আগেই মনে হচ্ছিল কেন্দ্রীয় দল কোনও উদ্দেশ্য নিয়ে রাজ্যে এসেছে। আজকের এই চিঠি অক্ষরে অক্ষরে তা প্রমাণ করে দিল।

পশ্চিমবঙ্গের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সফররত কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদলের দেওয়া জোড়া চিঠি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। এমনটাই অভিযোগ তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ তথা ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডাক্তার শান্তনু সেনের। শুক্রবার ওই চিঠি নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার রাজ্যের ২টি করোনা চিকিৎসাকেন্দ্র পরিদর্শনের পর শুক্রবার মুখ্যসচিবকে ২টি চিঠি দেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদলের প্রধান অপূর্ব চন্দ্র। তার একটি চিঠিতে নিউটাউন কোয়ারেন্টাইন সেন্টার ও বাঙুর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডের অব্যবস্থার কথা তুলে ধরেন তিনি। অন্য চিঠিতে প্রশ্ন তোলা হয়েছে রাজ্য সরকারের তৈরি ডেথ অডিট কমিটির বৈধতা ও কার্যপ্রণালি নিয়ে।

এই ২ চিঠি নিয়ে শান্তনু সেন বলেন, ‘আগেই মনে হচ্ছিল কেন্দ্রীয় দল কোনও উদ্দেশ্য নিয়ে রাজ্যে এসেছে। আজকের এই চিঠি অক্ষরে অক্ষরে তা প্রমাণ করে দিল। এই চিঠি ভুল ও মিথ্যা তথ্যে ভরা।’ শান্তনুবাবু বলেন, ‘চিঠিতে বলা হয়েছে হাসপাতালের ওয়ার্ডে মৃতদেহ পড়ে থাকছে কেন? তাঁদের হাসপাতাল পরিদর্শনে যাওয়ার আগে তো কিছু জিনিস জেনে আসা উচিত। জানা উচিত যে কারও মৃত্যুর চার ঘণ্টার মধ্যে তাঁকে মৃত ঘোষণা করা যায় না। ওই সময়ের মধ্যে ব্যক্তি বেঁচে উঠলেও উঠতে পারেন।’

শান্তনুবাবুর দাবি, মিথ্যা তথ্য দিয়ে রাজ্য সরকারকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল।



বন্ধ করুন