বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অন্ডালের আকাশে ফের ঝঞ্ঝা, কলকাতায় অবতরণ ইন্ডিগোর বিমানের
ফাইল ছবি

অন্ডালের আকাশে ফের ঝঞ্ঝা, কলকাতায় অবতরণ ইন্ডিগোর বিমানের

  • অসামরিক উড়ান বিশেষজ্ঞদের মতে, আগাম সতর্কতা হিসাবে এই পদক্ষেপ নিয়ে থাকতে পারেন ক্যাপ্টেন। ভূপ্রাকৃতিক কারণে ছোটনাগপুরের মালভূমির ওপরে শক্তিশালী বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি হয়।

ফের ঝড়বৃষ্টির জেরে ভোগান্তির শিকার হতে হল অন্ডালগামী বিমানের যাত্রীদের। বৃহস্পতিবার বিকেলে দিল্লি থেকে অন্ডালগামী বিমানকে নামতে হল দমদম বিমানবন্দরে। প্রায় আড়াই ঘণ্টা অপেক্ষার পর অন্ডালের উদ্দেশ্যে ফের উড়ে গেলেন তাঁরা। বিমানসংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা ভেবেই এই পদক্ষেপ।

গত ১ মে অন্ডাল বিমানবন্দরে অবতরণের আগে আকাশে ঝঞ্ঝার কবলে পড়ে স্পাইসজেটের বিমান। সেই ঘটনায় বিমানের ৪০ জন যাত্রী ও বিমানকর্মী আহত হয়েছিলেন। তার পর থেকে এই বিমানবন্দরে অবতরণের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করছেন পাইলটরা।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২.৪৮ মিনিটে দিল্লির ইন্দিরাগান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আকাশে ওড়ে স্পাইসজেটের 6E2146 উড়ানটি। গন্তব্য ছিল অন্ডালের কাজি নজরুল ইসলাম বিমানবন্দর। বিকেল সাড়ে ৪টে নাগাদ সেটি পৌঁছয় অন্ডালের আকাশে। তখন সেখানে বজ্রগর্ভ মেঘ সঞ্চারের জেরে ঝড়বৃষ্টি চলছিল। যার জেরে আকাশেই অপেক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেন বিমানের ক্যাপ্টেন। প্রায় ১ ঘণ্টা অন্ডালের আকাশে চক্কর কাটলেও আবহাওয়ার উন্নতি না হওয়ায় বিমানটিকে দমদম বিমানবন্দরে পাঠিয়ে দেন এয়ার ট্র্যাফিক কন্ট্রোলের আধিকারিকরা। বিকেল ৫টা ৪৪ মিনিটে দমদম নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে বিমানটি। প্রায় আড়াই ঘণ্টা অপেক্ষার পর আবহাওয়ার উন্নতি হলে যাত্রীদের ওই বিমানেই অন্ডালে ফেরানো হয়।

অসামরিক উড়ান বিশেষজ্ঞদের মতে, আগাম সতর্কতা হিসাবে এই পদক্ষেপ নিয়ে থাকতে পারেন ক্যাপ্টেন। ভূপ্রাকৃতিক কারণে ছোটনাগপুরের মালভূমির ওপরে শক্তিশালী বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি হয়। সুনির্দিষ্টভাবে তার পূর্বাভাস সব সময় পাওয়া যায় না। ফলে এই পরিস্থিতিতে যাত্রীদের সুরক্ষার কথা ভেবে বিমান অবতরণ করাতে চাননি ক্যাপ্টেন।

 

বন্ধ করুন