বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কালোবাজারি হচ্ছে না তো?‌ খতিয়ে দেখতে বাজারে হানা ইবি আধিকারিকদের
বাজারে অফিসাররা
বাজারে অফিসাররা

কালোবাজারি হচ্ছে না তো?‌ খতিয়ে দেখতে বাজারে হানা ইবি আধিকারিকদের

  • এদিন বেলেঘাটার রানি রাসমনি বাজার, সরকার বাজারে পৌঁছে যান এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের আধিকারিকরা।

‌মানিকতলা বাজারে বেগুনের দাম ৮০ টাকা কেজি। পটলের দাম ৮০ থেকে ১০০টাকা কেজির মধ্যে ঘোরাফেরা করছে। শুধু মানিকতলায় কেন, কলকাতার আশেপাশে অনেক বাজারেই এই একই দর ঘোরাফেরা করছে। নিত্য প্রয়োজনীয় শাক সব্জির দাম বাড়ল কেন। কালোবাজারি হচ্ছে না তো?‌ এই সব কিছু খতিয়ে দেখতে বিভিন্ন বাজারে হানা দিল এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের আধিকারিকরা।

এদিন বেলেঘাটার রানি রাসমনি বাজার, সরকার বাজারে পৌঁছে যান এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের আধিকারিকরা। সেখানে গিয়ে বিক্রেতারা কত দামে কিনছেন, কত টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে, এই সব তথ্য সংগ্রহ করেন তাঁরা। পেট্রোল, ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির সুযোগ নিয়ে কালোবাজারি বা মজুতদারি হচ্ছে কিনা, সেই বিষয়টিও খতিয়ে দেখেন আধিকারিকরা। এদিন বিক্রেতারা অনেকেই দাবি করেছেন, যেভাবে পেট্রোল, ডিজেলের দাম বেড়েছে, সেই কথা মাথায় রেখে খুচরো বাজারেও সবজি, মাছ, মাংসের দামও বেড়েছে। গত সোমবার হাওড়ার দুটি বাজারে হানা দেন এবি–এর আধিকারিকরা। হাওড়া থানা এলাকার কালীবাবুর বাজার, বাঁটরার কদমতলা বাজারে হানা দেন ইবি আধিকারিকরা। কথা বলেন বিক্রেতাদের সঙ্গে।

গত কয়েকদিন ধরেই বিভিন্ন বাজারে হানা দিচ্ছেন ইবির আধিকারিকরা। ‌গত শনিবার সল্টলেকের সিকে মার্কেট, জিডি মার্কেট, করুণাময়ী বাজারেও ইবি আধিকারিকরা হানা দেয়। ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলার পাশাপাশি কোন জিনিসের দাম কতটা বেড়েছে, সেই বিষয়েও জানেন আধিকারিকরা। শুধু সল্টলেকেই নয়, আশেপাশের জেলাতেও হানা দেয় ইবি আধিকারিকরা। উত্তর ২৪ পরগনার ব্যারাকপুরের নোনা চন্দনপুকুর বাজার, নীলগঞ্জ বাজারেও হানা দেন আধিকারিকরা।

 

বন্ধ করুন