বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Exclusive: জুনের শেষে ব্যান্ডেলে স্বাভাবিক হবে ট্রেন চলাচল, আশ্বাস পূর্ব রেলের

Exclusive: জুনের শেষে ব্যান্ডেলে স্বাভাবিক হবে ট্রেন চলাচল, আশ্বাস পূর্ব রেলের

ব্যান্ডেলের ইন্টারলকিং প্যানেল। 

একলব্যবাবু জানান, ‘মূল সমস্যা ১ নম্বর লাইন নিয়ে। সেখানে ইন্টারলকিংয়ে কিছু সমস্যা হওয়ায় ওই লাইনটি ব্যবহার করা যাচ্ছে না। এর জেরে কিছু লোকল ও এক্সপ্রেস ট্রেন ব্যান্ডেলে ঢোকার আগে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকছে।’

বিভীষিকার নাম ব্যান্ডেল। বিশ্বের সব থেকে বড় ইলেক্ট্রনিক রুট রিলে ইন্টারলকিংয়ের কাজ শেষ হওয়ার পর থেকেই ব্যান্ডেল জংশন স্টেশনের নাম শুনলেই আঁতকে উঠছেন হাওড়া মেইন লাইনের যাত্রীরা। স্টেশনে ঢোকার আগে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকছে এক একটি ট্রেন। যার যেরে যাত্রীদের একাংশের মধ্যে চরম ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। অসুবিধার কথা মেনে নিয়ে পূর্বরেলের মুখপাত্র জানিয়েছেন, যাত্রীদের নিরাপত্তার স্বার্থেই দেরিতে চলছে ট্রেন। চলতি মাসের শেষের দিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিন পূর্ব রেলের মুখপাত্র একলব্য চক্রবর্তী বলেন, ‘যে কোনও ইন্টারলকিংয়ের কাজের পরেই কয়েকদিন একটু সমস্যা হয়। আর এটা বিশ্বের সব থেকে বড় ইলেক্ট্রনিক রুট রিলে ইন্টারলকিং। কাজের পর দেখা যাচ্ছে বেশ কিছু সমস্যা রয়েছে। ফলে কয়েকটি ক্ষেত্রে কিছু পরিবর্তন ঘটাতে হচ্ছে। যার জেরে ট্রেন কিছুটা দেরিতে চলছে।’

একলব্যবাবু জানান, ‘মূল সমস্যা ১ নম্বর লাইন নিয়ে। সেখানে ইন্টারলকিংয়ে কিছু সমস্যা হওয়ায় ওই লাইনটি ব্যবহার করা যাচ্ছে না। এর জেরে কিছু লোকল ও এক্সপ্রেস ট্রেন ব্যান্ডেলে ঢোকার আগে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকছে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের কর্মীরা যুদ্ধকালীন তৎপরতায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছেন। ব্যান্ডেলে কাজ চলায় আমাদেরও সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে। এক্সপ্রেস ট্রেন ও মালগাড়ি পরিষেবা ব্যহত হচ্ছে। রেল মন্ত্রকের কাছে প্রতিদিন কোন ট্রেন কতটা দেরিতে চলছে তার তালিকা পাঠাতে হয়। সেই তালিকারও লন্ডভন্ড অবস্থা।’

একলব্যবাবুর আশ্বাস, ‘চলতি মাসের শেষের দিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বলে আশা করি। যাত্রীদের অনুরোধ করব একটু ধৈর্য্য ধরুন।’

 

বন্ধ করুন