বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার দায় কার? প্রশ্ন তুলে সরব কৈলাস বিজয়বর্গীয়
কৈলাস বিজয়বর্গীয়।
কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার দায় কার? প্রশ্ন তুলে সরব কৈলাস বিজয়বর্গীয়

  • এদিন টুইটারে কৈলাসবাবু লিখেছেন, ‘গুরুত্বপূর্ণ এই সেতু রক্ষণাবেক্ষণে যারা ব্যর্থ হয়েছে তাদের দায় নির্ধারণ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার সময় হয়েছে।

নবনির্মিত মাঝেরহাট সেতুর উদ্বোধনের দিনই সেতু ভেঙে পড়ার দায় নিয়ে প্রশ্ন তুলে সরব হলেন বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। এদিন মুখ্যমন্ত্রী যখন সেতুর উদ্বোধন করছেন তখন জোড়া টুইটে রাজ্য সরকারকে বেঁধেন তিনি। কৈলাসের হামলা থেকে ছাড় পাননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

২০১৮-র সেপ্টেম্বরে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়েছিল মাঝেরহাট সেতুর একাংশ। এর পর পুরো সেতু ভেঙে নতুন করে গড়ার সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার নবনির্মিত সেই সেতুর উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু কৈলাসের প্রশ্ন, সেতু কেন ভাঙল তার জবাব দেবে কে?

এদিন টুইটারে কৈলাসবাবু লিখেছেন, ‘গুরুত্বপূর্ণ এই সেতু রক্ষণাবেক্ষণে যারা ব্যর্থ হয়েছে তাদের দায় নির্ধারণ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার সময় হয়েছে। ২ বছর আগের সেই ঘটনায় ৩ জনের প্রাণ যাওয়ার পর রাজ্যের পূর্ত মন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত ছিল।’

কৈলাসের দাবি, ‘বিজেপির তরফে প্রচণ্ড চাপ তৈরির পরই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেতু উদ্বোধনে তৎপর হয়েছেন। কলকাতার মানুষকে এতদিন যে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে তা তাঁরা ভুলবেন না। দুর্ঘটনার জেরে ব্যাপক ক্ষতি ও মৃত্যুতেও ভাবলেশহীন ছিলেন তিনি’।

২০১৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ভেঙে পড়ে মাঝেরহাট সেতুর একটি স্প্যান। তদন্তে উঠে আসে সেতুর রক্ষণাবেক্ষণে গাফিলতির সঙ্গে মেট্রো প্রকল্পের কাজের ঝাঁকুনির ফলে দুর্বল হয়ে গিয়েছিল সেতুর কাঠামো। 

 

বন্ধ করুন