বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অন্ডাল বিমানবন্দরের শেয়ার নিয়ে খোঁচা রাজ্যপালের, রাজ্যের কাছে নথি তলব
জগদীপ ধনখড় (PTI)
জগদীপ ধনখড় (PTI)

অন্ডাল বিমানবন্দরের শেয়ার নিয়ে খোঁচা রাজ্যপালের, রাজ্যের কাছে নথি তলব

  • অন্ডাল বিমানবন্দরের বেশিরভাগ শেয়ার হাতে নিয়েছে রাজ্য সরকার।

কিছুদিন সাড়া মেলেনি তাঁর। এবার আবার স্বমহিমায় ফিরলেন তিনি। হ্যাঁ, পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এবার বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের উদ্যোগ নিয়ে টুইটে প্রশ্নবাণ নিক্ষেপ করলেন তিনি। আর তাতেই ফের নবান্ন–রাজভবন সংঘাত দেখতে পাচ্ছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

অন্ডাল বিমানবন্দরের বেশিরভাগ শেয়ার হাতে নিয়েছে রাজ্য সরকার। কেন্দ্রীয় সরকারের বেসরকারিকরণের নীতির মাঝে এই উদ্যোগ যথেষ্ট প্রশংসনীয়। কিন্তু মমতা সরকারের এই উদ্যোগ নিয়েও প্রশ্ন তুলে দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। সোমবার টুইট করে তিনি প্রশ্ন তোলেন, এই শেয়ার কেনা সংক্রান্ত চুক্তির নথিপত্র কোথায়? কাদের সঙ্গে আলোচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল? এখানেই তিনি থেমে থাকেননি। তাঁর দাবি, রাজ্যে এখন যা অর্থনৈতিক পরিস্থিতি, তাতে অন্ডাল বিমানবন্দরের ৪৭ শতাংশ শেয়ার নিজের হাতে নিয়ে রাজ্য সরকার আর্থিক বোঝা বাড়িয়েছে। তাই যাবতীয় তথ্য জানতে চান তিনি।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে পশ্চিম বর্ধমানের রানিগঞ্জে সভা করতে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন, পিপিপি মডেলে তৈরি অন্ডাল বিমানবন্দরের অধিকাংশ শেয়ার নিচ্ছে রাজ্য। প্রত্যেক জমিদাতাদের যথাযথ ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। অন্ডালে কাজি নজরুল বিমানবন্দর চালুর পরও সেভাবে আয় না হওয়ায় তা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। সেখান থেকে বিমানবন্দরটিকে ফের চাঙ্গা করে তুলতে রাজ্য সরকার হস্তক্ষেপ করল। ৪৭ শতাংশ শেয়ার এল রাজ্যের হাতে, আগে যা ছিল ২৬ শতাংশ।

এবার এই অন্ডাল বিমানবন্দর নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলে টুইট করেছেন রাজ্যপাল। এমনকী সরকারি কোষাগার থেকে কত খরচ হল? তাও জানতে চেয়েছেন তিনি। আবার সরকারের কাছে যাবতীয় নথি তিনি চেয়ে পাঠিয়েছেন। অন্ডাল বিমানবন্দরে বেশি করে সরকারি বিনিয়োগকে অনেকেই স্বাগত জানিয়েছেন। কিন্তু সেখানে রাজ্যপালের এই সংশয় প্রকাশ নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

 

বন্ধ করুন