গেটওয়ে অফ ইন্ডিয়ার সামনে প্রতিবাদ পড়ুয়াদের (ছবি সৌজন্য এএনআই)
গেটওয়ে অফ ইন্ডিয়ার সামনে প্রতিবাদ পড়ুয়াদের (ছবি সৌজন্য এএনআই)

যাদবপুর থেকে জামিয়া, JNU তাণ্ডবের প্রতিবাদে সরব পড়ুয়ারা

তাণ্ডবের প্রতিবাদে মিছিল করেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। পোড়ানো হয় বিজেপির পতাকা।

দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে (জেএনইউ) দুষ্কৃতীদের হামলার প্রতিবাদে সরব হল দেশের পড়ুয়া ও শিক্ষক মহল। মুম্বই, কলকাতা, দিল্লি, আলিগড়, পুনের বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা প্রতিবাদে সামিল হন।

আরও পড়ুন'হাতে লাঠি-রড়, মুখোশ পরে ক্যাম্পাসে দাপাচ্ছে দুষ্কৃতীরা', অভিযোগ JNU পড়ুয়াদের

সন্ধ্যায় জেএনইউতে তাণ্ডবের পরে গতরাত ১০টা নাগাদ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের চার নম্বর গেট থেকে মিছিল শুরু করেন পড়ুয়ারা। মিছিলে পা মেলান বহু প্রাক্তনী-সহ অধ্যাপকরাও। মিছিল থেকে বিজেপি ও এবিভিপি বিরোধী স্লোগান ওঠে। পোড়ানো হয় বিজেপির পতাকা। জেএনইউয়ে হামলার নিন্দা করে যাদবপুরের শিক্ষক সংগঠন জুটা। সংগঠনের সম্পাদক পার্থপ্রতিম রায় বলেন, 'বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসেই যদি পড়ুয়ারা সুরক্ষিত না থাকেন, তাহলে সভ্য সমাজে বাস করছি বলে আমরা কীভাবে দাবি করতে পারি? এরকম ঘটনায় আমরা আতঙ্কিত ও হতবাক।'

দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে (জেএনইউ) দুষ্কৃতীদের হামলার প্রতিবাদে সরব হল দেশের পড়ুয়া ও শিক্ষক মহল। মুম্বই, কলকাতা, দিল্লি, আলিগড়, পুনের বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা প্রতিবাদে সামিল হন।

আরও পড়ুন'হাতে লাঠি-রড়, মুখোশ পরে ক্যাম্পাসে দাপাচ্ছে দুষ্কৃতীরা', অভিযোগ JNU পড়ুয়াদের

সন্ধ্যায় জেএনইউতে তাণ্ডবের পরে গতরাত ১০টা নাগাদ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের চার নম্বর গেট থেকে মিছিল শুরু করেন পড়ুয়ারা। মিছিলে পা মেলান বহু প্রাক্তনী-সহ অধ্যাপকরাও। মিছিল থেকে বিজেপি ও এবিভিপি বিরোধী স্লোগান ওঠে। পোড়ানো হয় বিজেপির পতাকা। জেএনইউয়ে হামলার নিন্দা করে যাদবপুরের শিক্ষক সংগঠন জুটা। সংগঠনের সম্পাদক পার্থপ্রতিম রায় বলেন, 'বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসেই যদি পড়ুয়ারা সুরক্ষিত না থাকেন, তাহলে সভ্য সমাজে বাস করছি বলে আমরা কীভাবে দাবি করতে পারি? এরকম ঘটনায় আমরা আতঙ্কিত ও হতবাক।'

আরও পড়ুন : 'এই JNU-কে আমি চিনি না', বললেন প্রাক্তনী নির্মলা সীতারমন

জেএনইউয়ের ঘটনার প্রতিবাদে সামিল হন মুম্বইয়ের পড়ুয়ারা। গেটওয়ে অফ ইন্ডিয়ার অদূরে তাজমহল প্যালেসের কাছে জমায়েত হয়ে ভারতের অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন তাঁরা। মোমবাতি মিছিল করা হয়। মিছিলে হাঁটেন জেএনইউ প্রাক্তনী উমদ খালিদও।

একই ছবি ধরা পড়ে রাজধানীতে। দিল্লি পুলিশের সদর দপ্তরের বাইরে বিক্ষোভে সামিল হন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের কমপক্ষে ৫০০ জন পড়ুয়া। জেএনইউয়ের পাশে দাঁড়িয়েছে জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া ও দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়। পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে সরব হয়েছেন পড়ুয়া ও অধ্যাপকরা। দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস অধ্যাপক ভূপিন্দর চৌধুরী বলেন, 'সরকারের নির্দেশে পুলিশ-প্রশাসন কাজ করছে। এবিভিপি-সহ নাগরিকরা জেএনইউয়ের বাইরে জমায়েত হয়েছিলেন। আমরা চাই, পুলিশ কমিশনার এফআইআর দায়েরের বিষয়ে আশ্বাস দিন। জেএনইউ পড়ুয়ারা ছাড়া আর কেউ আহত হননি।'

দিল্লিতে প্রতিবাদ পড়ুয়াদের (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
দিল্লিতে প্রতিবাদ পড়ুয়াদের (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

হামলার প্রতিবাদে সরব হয়েছে আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। গতরাতে ক্যাম্পাস থেকে মোমবাতি মিছিল শুরু করেন তাঁরা। তা শেষ হয় বাব-ই-সইদ গেটের সামনে। মিছিল থেকে দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি তোলা হয়।

ছাত্র সংগঠনের প্রাক্তন সহ-সভাপতি হামজা সুফিয়ান বলেন, 'আমরা শান্তিপূর্ণভাবে মিছিল করেছি। জেএনইউতে নিরস্ত্র পড়ুয়াদের উপর হামলা চালিয়েছে এবিভিপি। তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে হবে। প্রতিবাদের জন্য মানুষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করছে সরকার।'

বন্ধ করুন