বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > জামিন পেলেন সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়
সুমন চট্টোপাধ্যায়
সুমন চট্টোপাধ্যায়

জামিন পেলেন সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়

  • ২০১৮ সালের ২০ ডিসেম্বর আই-কোর চিটফান্ড মামলায় সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করেছিল সিবিআই।

দীর্ঘ কারাবাসের পর আই-কোর চিটফান্ডকাণ্ডে জামিন পেলেন সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়। বুধবার তাঁর জামিন মঞ্জুর করেছে সুপ্রিম কোর্ট। গুরুতর শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে ভুবনেশ্বরের অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি তিনি। তাঁর করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা বেশি থাকায় জামিন দেওয়া হয়েছে বলে রায়ে উল্লেখ করেছেন বিচারপতিরা। 

সুমনবাবুর জামিন পাওয়ার খবর ফেসবুকে জানিয়েছেন তাঁর স্ত্রী কস্তুরী চট্টোপাধ্যায়। সঙ্গে রায়ের প্রতিলিপিও পেশ করেছেন তিনি। বুধবার সুপ্রিম কোর্টে বিচারপতি ফালি নরিমান, বিচারপতি নবীন সিনহা ও বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোরামে ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ে শুনানি হয় এই মামলার। 

তাতে সুমনবাবুর আইনজীবীদের সওয়াল শোনার পর আদালত রায়ে জানায়, হৃদযন্ত্র গুরুতর সমস্যা ও ফুসফুসে সংক্রমণ নিয়ে ভুবনেশ্বরের অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন সুমন চট্টোপাধ্যায়। ফলে তাঁর করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এটাই তাঁর জামিন পাওয়ার জন্য যথেষ্ট কারণ বলে আমাদের মনে হয়েছে। নিম্ন আদালতের অনুমতি নিয়ে সুমন চট্টোপাধ্যায়কে জামিনের নির্দেশ দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত। 

২০১৮ সালের ২০ ডিসেম্বর আই-কোর চিটফান্ড মামলায় সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করেছিল সিবিআই। তখন ‘এই সময়’ সংবাদপত্রের সম্পাদক ছিলেন তিনি। তাঁর বিরুদ্ধে চিটফান্ডের টাকা অন্যত্র সরাতে সাহায্য করার অভিযোগ এনেছিল CBI. গ্রেফতারির পর সুমনবাবুকে ভুবনেশ্বর নিয়ে যায় সিবিআই। সেই থেকে তাঁর ঠাঁই হয়েছিল কারাগারে। কারাগারে থাকাকালীন স্ত্রী কস্তুরী চট্টোপাধ্যায়ের মাধ্যমে তাঁর কথা মাঝে মাঝে তুলে ধরতেন সুমন। ১৯ মাসের কারাবাসের পর অবশেষে বন্দিজীবন শেষ হতে চলেছে তাঁর। 

 

বন্ধ করুন