বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনার মধ্যেও ৫৮ লাখ টাকায় চাকরি পেলেন JU ও NIT-র পড়ুয়ারা
করোনার মধ্যেও ৫৮ লাখ টাকায় চাকরি পেলেন JU ও NIT-র পড়ুয়ারা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
করোনার মধ্যেও ৫৮ লাখ টাকায় চাকরি পেলেন JU ও NIT-র পড়ুয়ারা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

করোনার মধ্যেও ৫৮ লাখ টাকায় চাকরি পেলেন JU ও NIT-র পড়ুয়ারা

এই বছর যে তিন জন পড়ুয়া পাশ করেছেন, তাঁরা বার্ষিক ৫৮ লাখ টাকার চাকরি পেয়েছেন।

‌করোনা আবহেও ক্যাম্পাস ইন্টারভিউয়ে চাকরি পাওয়ার ব্যাপারে ভালো জায়গায় রয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ও দুর্গাপুরের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির (‌এনআইটি)‌ পড়ুয়ারা। জানা গিয়েছে, সম্প্রতি যে ক্যাম্পাস ইন্টারভিউ হয়েছে, অনেক পড়ুয়াই বার্ষিক লক্ষাধিক টাকা মাইনেতে চাকরিতে যোগ দিয়েছেন। অনেকেই বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থায় যোগ দিয়েছেন। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ও এনআইটির এই সাফল্য বাংলার কাছে গর্বের বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্লেসমেন্ট বিভাগের আধিকারিক শমিতা ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, এই বছর যে তিনজন পড়ুয়া পাশ করেছেন, তাঁরা বার্ষিক ৫৮ লাখ টাকার চাকরি পেয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার একটি প্রযুক্তি সংস্থার হয়ে ভারতের অফিসে তাঁরা চাকরি পেয়েছেন। এই তিন পড়ুয়া কম্পিউটার সায়েন্স, ইনফোরমেশন টেকনোলজি ও ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন বিভাগের পড়ুয়া। একইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, পরের বছর যাঁরা পাশ করে বেরোবেন, তাঁদেরও ক্যাম্পাস ইন্টারভিউ শুরু হয়ে গিয়েছে। ৯ দিনের মধ্যে ৪৬ জন বার্ষিক ৩০ লাখ টাকার চাকরি পেয়ে গিয়েছেন। বার্ষিক ১৮ থেকে ৩০ লাখ টাকার চাকরি পেয়েছেন ৩২ জন। স্বভাবতই বিশ্ববিদ্যালয়ের এই সাফল্যে উচ্ছ্বসিত উপাচার্য সুরঞ্জন দাস। তিনি জানান, 'করোনা অতিমারীর সময়ে অনেক প্রতিবন্ধকতার মধ্য দিয়ে পড়াশোনা করেছেন পড়ুয়ারা। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা তাঁদের যোগ্য বলে মনে করেছে। বিষয়টি সত্যিই খুব গর্বের।'

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো সাফল্য এনে দিয়েছে দুর্গাপুরের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি। দুর্গাপুরের এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তরফে জানানো হয়েছে, ২২ দিন ধরে ইন্টারভিউ চলেছে। এখনও পর্যন্ত ১৯ জনকে নেওয়া হয়েছে। তাঁদের বার্ষিক ৪৪ লাখ টাকার আর্থিক প্যাকেজে চাকরিতে নেওয়া হয়েছে। একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা তাঁদের চাকরিতে নিযুক্ত করেছে।

বন্ধ করুন