বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌আমি মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি’‌, ভরা এজলাসে বললেন বিচারপতি, কিন্তু কেন?
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানালেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

‘‌আমি মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি’‌, ভরা এজলাসে বললেন বিচারপতি, কিন্তু কেন?

  • শিক্ষকতার চাকরি নিয়ে যখন সমস্যা হয়েছিল তখন বিচারপতি সোমা দাসকে অন্য সরকারি চাকরি দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তিনি তাতে সাড়া দেননি। তার পরই সোমা দাসের জন্য রাজ্য সরকারের কাছে শিক্ষকতার চাকরির অনুরোধ করেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। সোমা দাস এখন নবম–দশম শ্রেণির বাংলা শিক্ষিকা।

এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতিতে নিয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কড়া রায় শুনিয়েছিলেন তিনি। তার জন্য তাঁকেও অনেকে অনেক কটাক্ষ করেছেন। কিন্তু আজ, মঙ্গলবার তিনিই ভরা এজলাসে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানালেন। হ্যাঁ, তিনি কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। ক্যানসার আক্রান্ত সোমা দাসকে শিক্ষকতার চাকরি দেওয়ায় তিনি ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

ঠিক কী বলেছেন বিচারপতি?‌ আজ, মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টে বিচারপতি অভিজিৎ বলেন, ‘আমি একটা অনুরোধ করেছিলাম। সেটা কার্যকর করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাই তাঁকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি খুশি হয়েছি।’ এই মন্তব্যের পর কলকাতা হাইকোর্টের কয়েকজন আইনজীবী চর্চা করতে গিয়ে নিজেদের মধ্যে বলেছেন, মোগাম্বো খুশ হুয়া।

কী কী প্রস্তাব রেখেছিলেন বিচারপতি?‌ এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় তিনি সিবিআইকে তদন্তভার দেন। রাজ্য সরকার তার বিরোধিতা করেননি। তবে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং পরেশ অধিকারীকে মন্ত্রিসভা থেকে সরাতে প্রস্তাব দিয়েছিলেন। যা শোনা হয়নি। আবার ক্যানসার আক্রান্ত এসএসসি আন্দোলনকর্মী সোমা দাসকে চাকরি দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন। যা রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাতেই বিচারপতি জানান, ওই অনুরোধ রাখায় তিনি খুশি।

উল্লেখ্য, শিক্ষকতার চাকরি নিয়ে যখন সমস্যা হয়েছিল তখন বিচারপতি সোমা দাসকে অন্য সরকারি চাকরি দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তিনি তাতে সাড়া দেননি। তার পরই সোমা দাসের জন্য রাজ্য সরকারের কাছে শিক্ষকতার চাকরির অনুরোধ করেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। সোমা দাস এখন নবম–দশম শ্রেণির বাংলা শিক্ষিকা। আদালতের অনুরোধে নবান্ন থেকে সোমা দাসের শিক্ষকতার চাকরির ব্যবস্থা করা হয়।

বন্ধ করুন