বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কিছুক্ষণ পরেই পশ্চিমের জেলাগুলিতে ঝড়বৃষ্টি, কপাল ভালো থাকলে ভিজতে পারে কলকাতাও
পশ্চিমের আকাশে ঘনাচ্ছে কালো মেঘ। ছবি Windy
পশ্চিমের আকাশে ঘনাচ্ছে কালো মেঘ। ছবি Windy

কিছুক্ষণ পরেই পশ্চিমের জেলাগুলিতে ঝড়বৃষ্টি, কপাল ভালো থাকলে ভিজতে পারে কলকাতাও

  • উপগ্রহ চিত্র অনুসারে শনিবার দুপুরে ঝাড়খণ্ডের ওপর তৈরি হয়েছে বজ্রগর্ভ মেঘ। যা ক্রমশ পূর্ব দক্ষিণপূর্ব দিকে এগোচ্ছে। এর জেরে কিছুক্ষণের মধ্যে পশ্চিমের জেলাগুলিতে ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

সপ্তাহখানেকের তাপপ্রবাহের পর শুক্রবার বিকেলে কালবৈশাখী স্বস্তি ফিরিয়ে দক্ষিণবঙ্গে। তবে ঝড়ের দাপটে লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে পশ্চিমের একাধিক জেলা। সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে না উঠতে শনিবার ফের কালবৈশাখী আঘাত হানতে চলেছে সেখানে। উপগ্রহ চিত্র অনুসারে শনিবার বিকেলে ফের ঝড়বৃষ্টি হতে চলেছে পুরুল্যা, বীরভূম, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান, ঝাড়গ্রামে। বরাত ভালো থাকলে সন্ধের পর ঝড়বৃষ্টি হতে পারে কলকাতা ও লাগোয়া জেলাগুলিতে।

উপগ্রহ চিত্র অনুসারে শনিবার দুপুরে ঝাড়খণ্ডের ওপর তৈরি হয়েছে বজ্রগর্ভ মেঘ। যা ক্রমশ পূর্ব দক্ষিণপূর্ব দিকে এগোচ্ছে। এর জেরে কিছুক্ষণের মধ্যে পশ্চিমের জেলাগুলিতে ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

আবহাওয়া দফতরের তরফেও বীরভূম ও পুরুল্যা জেলায় ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি হয়েছে। পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটারের কম বেগে হাওয়া বইতে পারে। সঙ্গে হতে পারে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি।

এছাড়া উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলাতেও ঝড়বৃষ্টির সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। তার মধ্যে রয়েছে কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার ও জলপাইগুড়ি জেলার একাংশ। ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে উত্তর দিনাজপুরেও।

শুক্রবার বিকেলে পশ্চিমের জেলাগুলির ওপর দিয়ে প্রবল কালবৈশাখী বয়ে যায়। যার জেরে ভেঙেছে বহু কাঁচা বাড়ি। ভেঙে পড়েছে বহু গাছ। দুর্গাপুরসহ বেশ কিছু জায়গায় শিলাবৃষ্টিতে চাষের ক্ষতি হয়েছে। খুঁটি উপড়ে ও তার ছিঁড়ে বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে একাধিক জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা। তার মধ্যেই আবার হানা দিতে চলেছে কালবৈশাখী।

 

বন্ধ করুন