বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অবশেষে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতির পদ থেকে সরলেন কল্যাণময়, এলেন কে?
কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় 

অবশেষে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতির পদ থেকে সরলেন কল্যাণময়, এলেন কে?

  • কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়কে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি পদে বহাল রাখার জন্য ওই পদে অবসরের বয়স বাড়িয়ে ৬৮ বছর করেছিল মমতা সরকার। এই মর্মে বিধানসভায় আইন পাশ করে তারা। কিন্তু ওই বয়সও পার হয়ে যায় কল্যাণময়বাবুর।

SSC নিয়োগ দুর্নীতিতে অন্যতম অভিযুক্ত কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দিল সরকার। বৃহস্পতিবার বিকেলে স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে একথা জানানো হয়েছে। তাঁর বদলে অধ্যাপক রামানুজ গঙ্গোপাধ্যায় নেতৃত্বে তৈরি করা হয়েছে ৯ সদস্যের অ্যাডহক কমিটি। তাঁরাই পরিচালনা করবেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

SSC নিয়োদ দুর্নীতিতে কল্যাণময়কে ইতিমধ্যে একাধিকবার জেরা করেছে সিবিআই। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের দফতরে তল্লাশির সময় তাঁকে বাড়ি থেকে তুলে এনেছেন গোয়েন্দারা। তাঁর বিরুদ্ধে অযোগ্য প্রার্থীদের নিয়োগপত্র তৈরি করে শান্তিপ্রসাদ সিনহার হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়কে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি পদে বহাল রাখার জন্য ওই পদে অবসরের বয়স বাড়িয়ে ৬৮ বছর করেছিল মমতা সরকার। এই মর্মে বিধানসভায় আইন পাশ করে তারা। কিন্তু ওই বয়সও পার হয়ে যায় কল্যাণময়বাবুর। তার পরও তাঁকে সরায়নি সরকরা। অবশেষে SSC দুর্নীতিতে তাঁর নাম জড়ানোয় সরতে হল কল্যাণময়কে।

স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ত্বের অধ্যাপক রামানুজ গঙ্গোপাধ্যায় এবার থেকে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতির পদ সামলাবেন। তার সঙ্গে কাজ করবে ৯ সদস্যের অ্যাড হক কমিটি। গ্রেফতারি অবধারিত জেনে কি মুখ বাঁচাতে শেষ মুহূর্তে সরানো হল কল্যাণময়কে? প্রশ্ন তুলছে বিরোধীরা।

 

বন্ধ করুন