বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'প্যারাসুট নিয়ে নেমেছেন', অভিষেকের বুথ সভাপতি হওয়ার যোগ্যতাও নেই, তোপ সুকান্তে
 সুকান্ত মজুমদার। ফাইল ছবি।

'প্যারাসুট নিয়ে নেমেছেন', অভিষেকের বুথ সভাপতি হওয়ার যোগ্যতাও নেই, তোপ সুকান্তে

  • বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, 'উনি প্যারাসুট নিয়ে মাঠে নেমেছেন। শুধু উপরে উপরে রাজনীতি করতে জানেন । কিন্তু রাজনীতির কিছুই বোঝেন না। '

আগামী রবিবার কলকাতার পুরভোট। তার আগেই রাজনীতির পারদ ক্রমেই চড়ছে।পুরভোটকে কেন্দ্র করে সমস্ত রাজনৈতিক দলের নেতারা এখন জোরকদমে প্রচারের ময়দানে নেমেছেন। আর প্রচারে বেরিয়ে রাজনৈতিক দলগুলি এখন একে অপরের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে ব্যস্ত। আর এরইমধ্যে প্রচারে বেরিয়ে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, 'উনি প্যারাসুট নিয়ে মাঠে নেমেছেন। শুধু উপরে-উপরে রাজনীতি করতে জানেন। কিন্তু রাজনীতির কিছুই বোঝেন না।' সুকান্ত মজুমদার মনে করেন, 'তৃণমূল ক্ষমতায় আছে বলে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হতে পেরেছেন। প্রকৃতপক্ষে তিনি বুথ সভাপতি হওয়ার যোগ্য নন। '

এবারের পুরভোটে নিজেদের আসন ধরে রাখতে মরিয়া তৃণমূল। সেই কারণে পুরভোটের প্রচারের ময়দানে নেমে পড়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূলের অন্যান্য শীর্ষ নেতৃত্ব। ইতিমধ্যে অভিষেক আত্মপ্রত্যয়ী হয়ে দাবি করেছেন, উত্তর কলকাতার প্রতিটি ওয়ার্ডে তৃণমূল জিতবে। সেইসঙ্গে ভোটে জিতে তৃণমূল কংগ্রেস মানুষের হয়ে কাজ করবে বলেই দাবি করেছিলেন তিনি।

এরপরেই অভিষেককে কটাক্ষ করেন সুকান্ত মজুমদার। বিজেপির রাজ্য সভাপতির প্রশ্ন, তৃণমূল দাবি করেছে যে তারা ১০ বছর ধরে মানুষের হয়ে কাজ করেছে । তাহলে কেন তাদের ইস্তাহার প্রকাশ করতে হল?। তাঁর বক্তব্য, এখনও কলকাতার মানুষজন জলযন্ত্রণা থেকে মুক্তি পাযন না। তাঁর কটাক্ষ, 'ক্ষমতায় থাকার পর কী করতে হবে, সেটা গলাবাজি করে না জানিয়ে এতদিন কী করেছে, সেটা বলা দরকার।'

বন্ধ করুন