বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অ্যাক্রোপলিস মলে থাকা অফিসগুলি খুলবে কবে?‌ জানিয়ে দিলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম

অ্যাক্রোপলিস মলে থাকা অফিসগুলি খুলবে কবে?‌ জানিয়ে দিলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম

অ্যাক্রোপলিস মল ফাইল ছবি (Merlin Group)

এখানে যেভাবে আগুন লেগেছিল দ্রুত দমকল পদক্ষেপ না করলে অনেক বড় ঘটনা ঘটতে পারত। কসবার এই মলের তিনতলায় থাকা একটি দোকানে প্রথমে আগুন লাগে। তারপর তা উপরে ছড়িয়ে পড়ে। দমকলকর্মীরা ‘হাইড্রোলিক ল্যাডার’ নিয়ে এসে আগুন নেভান। আপৎকালীন সিঁড়ি ফাঁকা ছিল না বলে অভিযোগ তোলেন অনেকে। দমকল এই ঘটনার তদন্তে করছে।

কসবার অ্যাক্রোপলিস মলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা দেখেছিল শহরবাসী। আতঙ্কে সিঁটিয়ে গিয়েছিলেন ওখানে কর্মরত মানুষজন। আবার কবে খুলবে অ্যাক্রোপলিস মল?‌ প্রশ্ন সকলেরই। এই নিয়ে শনিবার কলকাতা পুরসভায় একটি বৈঠক হয়। সেই বৈঠক শেষে সাংবাদিক বৈঠক করেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। সেখানেই তিনি জানান, মলে থাকা অফিসগুলি খোলা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। দমকল দফতরের সঙ্গে তাঁদের আলোচনা হয়েছে। বন্ধ মলের ভিতর একাধিক অফিস খোলার জন্য দমকলের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। গত ১৪ জুন কসবার অ্যাক্রোপলিস মলে আগুন লাগে।

এখানের আগুনের লেলিহান শিখায় শপিং মলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। গোটা শপিং মল বিদ্যুৎ–বিচ্ছিন্ন করতে হয়েছে। দমকলের পক্ষ থেকে অনুমতি পাওয়া গেলে মেরামতির কাজ শুরু হবে। তার পরই অ্যাক্রোপলিস মল খুলবে। দমকল সূত্রে খবর, মেরামতি করার পর সব দেখে মল খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। অগ্নিকাণ্ডের পর থেকে এখনও বন্ধ রয়েছে মলটি। এখানে থাকা একাধিক অফিসও বন্ধ। কলকাতা পুরসভা সূত্রে খবর, ওই অফিসগুলি খোলার জন্য আবেদন করা হয়েছে মেয়র ও দমকলমন্ত্রীর দফতরে।

আরও পড়ুন: ‘‌শহরে পানীয় জলের সংকট মেটাতে কাজ করছি’‌, আগামী ২৫ বছরের পরিকল্পনায় মেয়র‌ ফিরহাদ হাকিম

এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা শহরে আলোড়ন ফেলে দিয়েছিল। আতঙ্কে এবং ভয়ে মানুষজন ছোটাছুটি করতে শুরু করেন। সেখানে এখন অ্যাক্রোপলিস মল খোলার বিষয়ে মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘আমি দমকল মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। রেস্তোরাঁর অংশ বন্ধ রেখে বাকি দোকান, অফিস খুলে দেওয়া যায় কিনা সেটা দেখা হচ্ছে। তবে আগে সিইএসসি এসে অফিসগুলিতে বিদ্যুৎ সংযোগের পরই তা খোলা যাবে।’ বাকি সমস্ত বিষয় নিয়ে তদন্ত শুরু করছে দমকল। তাই অ্যাক্রোপলিস মলটি দমকলের নির্দেশে বন্ধ আছে। আর তার জন্যই এখানে থাকা একাধিক অফিসও বন্ধ। এবার সেই অফিসগুলি যাতে খোলা যায় তার জন্য উদ্যোগী হচ্ছেন মেয়র।

এখানে যেভাবে আগুন লেগেছিল দ্রুত দমকল পদক্ষেপ না করলে অনেক বড় ঘটনা ঘটতে পারত। কসবার এই মলের তিনতলায় থাকা একটি দোকানে প্রথমে আগুন লাগে। তারপর তা উপরে ছড়িয়ে পড়ে। দমকলকর্মীরা ‘হাইড্রোলিক ল্যাডার’ নিয়ে এসে আগুন নেভান। আপৎকালীন সিঁড়ি ফাঁকা ছিল না বলে অভিযোগ তোলেন অনেকে। দমকল এই ঘটনার তদন্তে করছে। এই ঘটনার পর কলকাতা পুরসভার পক্ষ থেকে দমকলের কাছে আবেদন করা হয়, রেস্তোরাঁ বা বাণিজ্যিক ভবনে অনুমতি দেওয়ার ক্ষেত্রে নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেখে তবেই যেন সবুজ সংকেত দেওয়া হয়। তাই মল সম্পূর্ণ ভাবে কবে খুলবে সেটার এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি।

 

বাংলার মুখ খবর

Latest News

বাংলাদেশে কার্ফুতেও হিংসার বলি ১০, আজ সুপ্রিম কোর্টে কোটা মামলার শুনানি বাংলার সাপ কামড়ালে তার চিকিৎসা করতে অনেকাংশেই ব্যর্থ প্রচলিত ওষুধ! সোহিনীকে খাইয়ে দিচ্ছেন শোভন, বিয়ের পর প্রকাশ্যে আইবুড়োভাতের ছবি!মেনুতে কী ছিল দাম বাড়িয়েও পুরনো ট্যারিফ ফিরিয়ে আনল জিও, সঙ্গে বাড়ল প্ল্যানের ভ্যালিডিটি! ৪৫টা ট্রফি! অনন্য কীর্তির জন্য লিওনেল মেসিকে বিশেষ সম্মান দিল ইন্টার মায়ামি শুক্রাদিত্য রাজযোগে ৫ রাশির প্রেম জীবনে আসবে জোয়ার, দেখুন সাপ্তাহিক প্রেম রাশিফল কড়া হল সরকার, এবার থেকে এই ভাতা পেতে বাংলার সরকারি শিক্ষকদের মানতে হবে ১৩ শর্ত গেমসের ভারতীয় দলে সেনার ২৪ প্রতিযোগী, রয়েছেন সার্ভিসেস থেকে মহিলা প্রতিযোগীও 'আপনি মাসি নাকি...' বোনঝির সঙ্গে নেচে কটাক্ষের শিকার মিমি! কিন্তু কেন? পেট্রাপোলে বন্ধ বাণিজ্য, বাংলাদেশ থেকে মাছ আসছে না এপারে, লোকসান কয়েক কোটি টাকার

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.