বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বন্ধ থাকা ভাতা আবার চালু হচ্ছে, পুজোর আগেই পাবেন কলকাতা পুরসভার কর্মীরা

বন্ধ থাকা ভাতা আবার চালু হচ্ছে, পুজোর আগেই পাবেন কলকাতা পুরসভার কর্মীরা

কলকাতা পুরসভা ভবন

জানা গিয়েছে, করোনাভাইরাসের সময় পুরসভার আয় কমেছিল। ফলে ভাঁড়ারে টান পড়ে। তার জেরে ভাতা বন্ধ হয়েছিল। এবার সম্পত্তি কর থেকে আয় বেড়েছে। আর্থিক হাল ভাল হওয়ায় কর্মীদের ভাতা দিতে উদ্যোগ নিয়েছে পুরসভা কর্তৃপক্ষ। তবে পুরনো নিয়মের ভাতা কাঠামোয় পুর্নগঠন করা হচ্ছে।

এবার দুর্গাপুজোর আগেই ভাতা পাবেন কলকাতা পুরসভার কর্মীরা। দেড় বছর বন্ধ ছিল এই ভাতা। তবে আবারও ভাতা পাবেন কর্মীরা। এটা অবশ্যই কর্মীদের কাছে সুখবর। যদিও ভাতা কাঠামোয় হবে সংস্কার। ভাতার সর্বোচ্চ মাসিক সিলিং বেঁধে দেবে কলকাতা পুরসভা কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যে মেয়র ফিরহাদ হাকিমের অনুমোদন মিলেছে। দ্রুতই বিজ্ঞপ্তি জারি করবে কলকাতা পুরসভা।

ঠিক কী থবর মিলেছে?‌ কলকাতা পুরসভা সূত্রে খবর, সাধারণত গ্রুপ–সি এবং গ্রুপ–ডি কর্মীরা এই ভাতা পেয়ে থাকেন। এই ভাতার ক্ষেত্রে সংস্কার করতে চলেছে পুরসভা। এবার থেকে মজদুর বা সম–মর্যাদার পদে কর্মরত কর্মীকে ওভারটাইম–সহ নানা ভাতা মিলিয়ে সর্বোচ্চ দিনপিছু ৪০২ টাকা দেওয়া হবে। আর অন্য কর্মীদের ক্ষেত্রে এই ভাতার পরিমাণ মাত্র ১০০ টাকা। আবার কোনও কর্মী যদি স্বাভাবিক কাজের সময়ের অতিরিক্ত ছ’ঘণ্টার বেশি সময় কাজ করেন, তাহলে মিলবে দৈনিক ২৫০ টাকা৷ সেক্ষেত্রে যত খুশি তত ওভারটাইম নেওয়া যাবে না। নতুন বিজ্ঞপ্তিতে থাকছে নির্দিষ্ট সিলিং। প্রতি মাসে সর্বোচ্চ সিলিং ২৫০০ টাকা।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ পুরসভার কর্মীদের ভাতা কাঠামোয় সংস্কারের কাজ অনেকদিন ধরেই শুরু করেছে কলকাতা পুরসভা। তাতে মাসিক সিলিং বেঁধে দিতে চলেছে কর্তৃপক্ষ। রাত্রিকালীন হলিডে এবং টিফিন ভাতা–সহ সবমিলিয়ে প্রত্যেক মাসে একজন কর্মী ওভারটাইমের জন্য সর্বোচ্চ ২৫০০ টাকা অতিরিক্ত পাবেন। মেয়র পরিষদ বৈঠকের সিলমোহর পড়েছে। এবার শীঘ্রই এই সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি হতে চলেছে বলে পুরসভা সূত্রে খবর।

তাহলে কী পুরসভার আয় বাড়ল?‌ জানা গিয়েছে, করোনাভাইরাসের সময় পুরসভার আয় কমেছিল। ফলে ভাঁড়ারে টান পড়ে। তার জেরে ভাতা বন্ধ হয়েছিল। এবার সম্পত্তি কর থেকে আয় বেড়েছে। আর্থিক হাল ভাল হওয়ায় কর্মীদের ভাতা দিতে উদ্যোগ নিয়েছে পুরসভা কর্তৃপক্ষ। তবে পুরনো নিয়মের ভাতা কাঠামোয় পুর্নগঠন করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন