বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আজ ও আগামিকাল শুধু দ্বিতীয় ডোজ দেবে কলকাতা পুরনিগম
করোনা টিকার জোগানের অভাব, আজ ও আগামিকাল শুধু দ্বিতীয় ডোজ দেবে কলকাতা পুরনিগম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
করোনা টিকার জোগানের অভাব, আজ ও আগামিকাল শুধু দ্বিতীয় ডোজ দেবে কলকাতা পুরনিগম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

আজ ও আগামিকাল শুধু দ্বিতীয় ডোজ দেবে কলকাতা পুরনিগম

  • হাতে নেই পর্যাপ্ত করোনাভাইরাস টিকার জোগান। দাবি পুরনিগমের।

হাতে নেই পর্যাপ্ত করোনাভাইরাস টিকার জোগান। তাই আজ (বুধবার) এবং আগামিকাল (বৃহস্পতিবার) কলকাতা পুরনিগমের স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে শুধুমাত্র দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। এমনটাই জানিয়েছেন রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা অজয় চক্রবর্তী। 

কলকাতা পুরনিগম সূত্রে খবর, দ্রুত হারে টিকাপ্রদানের জন্য পুরনিগমের হাতে পর্যাপ্ত প্রতিষেধকের প্রয়োজন। কিন্তু চাহিদা অনুযায়ী আসছে না টিকা। উলটে পরিস্থিতি এমন যে আপাতত দ্বিতীয় ডোজের প্রাপকদের উপর বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। টিকার জোগান স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সেই নীতি বজায় রাখা হবে। রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা জানিয়েছেন, দ্রুত গতিতেই টিকাকরণ চালিয়ে যেতে চায় পুরনিগম।

তবে শুধু পুরনিগম নয়, দ্বিতীয় ডোজের ক্ষেত্রে বাড়তি গুরুত্ব আরোপ করছে রাজ্য সরকারও। টিকার প্রাপ্যতার অপ্রতুলতায় কারণ দর্শিয়ে ইতিমধ্যে রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, আগামিদিনে যে পরিমাণ টিকা আসবে, তার ৫০ শতাংশ দ্বিতীয় ডোজ প্রাপকদের জন্য সংরক্ষিত করা হবে। বাকি টিকা দেওয়া হবে প্রথম ডোজ প্রাপকদের। স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন নিয়ে আপাতত মোট ৮৪৩,৮৪৭ জনের করোনার দ্বিতীয় ডোজ বাকি আছে।

অন্যদিকে, কসবার ভুয়ো টিকাকরণ ক্যাম্পের বিষয়টি সামনে আসার পর প্রতিষেধক প্রদানের ক্ষেত্রে সতর্কভাবে পা ফেলছে পুরনিগম। প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম ইতিমধ্যে জানিয়েছেন, রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের অনুমতি ছাড়া কলকাতার কোনও টিকাকরণের শিবিরের আয়োজন করা যাবে না। কোনও সংস্থা যদি টিকাকরণ শিবিরের আয়োজন করতে চায়, তাহলে স্বাস্থ্য দফতরের কাছে আবেদন জানাতে হবে। স্বাস্থ্য দফতর অনুমোদন দিলে সংশ্লিষ্ট আবেদনকারীর কাছে একটি কোড আসবে। সেই কোডের ভিত্তিতে টিকা দেবে পুরনিগম।

বন্ধ করুন