বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কেন্দ্র নয়, পুরসভার ভুলেই কলকাতায় কোভ্যাকসিনের আকাল, মানলেন অতীন ঘোষ
অতীন ঘোষ। ফাইল ছবি
অতীন ঘোষ। ফাইল ছবি

কেন্দ্র নয়, পুরসভার ভুলেই কলকাতায় কোভ্যাকসিনের আকাল, মানলেন অতীন ঘোষ

  • রাজ্যে করোনা টিকার সংকটের কথা মাথায় রেখে গত ২৯ জুন এক নির্দেশিকা জারি করেন স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণস্বরূপ নিগম। তাতে তিনি করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজকে অগ্রাধিকার দিতে নির্দেশ দেন।

কেন্দ্র নয়, কলকাতা পুরসভার ভুলেই আকাল দেখা দিয়েছে কোভ্যাকসিনের। যার ফলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে কলকাতাবাসীকে। বুধবার কার্যত একথা স্বীকার করে নিলেন পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রশাসক অতীন ঘোষ। সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, এই ভুল আর হবে না।

গত প্রায় ১ সপ্তাহ ধরে কলকাতায় মিলছে না কোভ্যাকসিন। যার জেরে দ্বিতীয় ডোজের সময় পেরিয়ে গেলেও টিকা পাননি অনেকে। এই পরিস্থিতি কেন তৈরি হল তা জানতে কমিটি গঠন করেছিল পুরসভা। সেই কমিটির তদন্তে উঠে এসেছে, স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশিকা অমান্য করে দেদার কোভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দিয়ে গিয়েছে কলকাতা পুরসভা।

রাজ্যে করোনা টিকার সংকটের কথা মাথায় রেখে গত ২৯ জুন এক নির্দেশিকা জারি করেন স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণস্বরূপ নিগম। তাতে তিনি করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজকে অগ্রাধিকার দিতে নির্দেশ দেন। পরিসংখ্যান দিয়ে তিনি বলেন, জুলাই মাসে ৬,৩৭,২৬৩ জনকে ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ দিতে হবে। সেই টিকা হাতে রেখে যেন প্রথম ডোজ দেওয়া হয়।

কিন্তু স্বাস্থ্যসচিবের সেই পরামর্শে কর্ণপাত না করে জুলাই মাসে ৫০ হাজার মানুষকে কোভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দেওয়া হয়। যার ফলে মাসের শেষে চরম আকাল দেখা দেয় টিকায়। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছয় যে পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায় কোভ্যাকসিনের টিকাকরণ। নতুন টিকা না এলে টিকাকরণ সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দেওয়া হয় দ্বিতীয় ডোজ প্রাপকদের।

বুধবার এই নিয়ে অতীনবাবু বলেন, ‘আমাদের একটা ভুল হয়ে গিয়েছে। কোভিশিল্ড না থাকায় আমরা এমাসে প্রচুর মানুষকে কোভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দিয়েছি। যার ফলে টিকার সংকট তৈরি হয়েছে। এই ভুল ভবিষ্যতে যেন না হয় সেদিকে নজর রাখবে পুরসভা।’

 

বন্ধ করুন