বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনা পরীক্ষায় আত্মনির্ভর হতে চায় কলকাতা পুরসভা, তৈরি হচ্ছে জোড়া পরীক্ষাগার
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

করোনা পরীক্ষায় আত্মনির্ভর হতে চায় কলকাতা পুরসভা, তৈরি হচ্ছে জোড়া পরীক্ষাগার

  • জানা গিয়েছে, কলকাতা পুরসভার ৫৮ ও ১১১ নম্বর ওয়ার্ডে তৈরি হবে পরীক্ষাকেন্দ্র দুটি। এর মধ্যে ৫৮ নম্বর ওয়ার্ডে চম্পামণি মাতৃসদনে করোনা পরীক্ষাগারের সঙ্গে হবে ১০০ শয্যার হাসপাতাল।

করোনা যে সহজে ছাড়বে না তা আগেই বলে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওদিকে এই পরিস্থিতিতে আত্মনির্ভরতার পথে হাঁটার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দুয়ের মিশেল ঘটিয়ে করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে আত্মনির্ভর হওয়ার পরিকল্পনা শুরু করল ফিরহাদ হাকিম পরিচালিত কলকাতা পুরসভা। জানা গিয়েছে, ২টি করোনা পরীক্ষাকেন্দ্র তৈরি করতে চলেছে তারা। ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে নকসা তৈরির কাজ। আইসিএমআর-এর ছাড়পত্র পেলে ৩ মাসের মধ্যে কাজ শুরু করবে এই পরীক্ষাকেন্দ্রগুলি।

জানা গিয়েছে, কলকাতা পুরসভার ৫৮ ও ১১১ নম্বর ওয়ার্ডে তৈরি হবে পরীক্ষাকেন্দ্র দুটি। এর মধ্যে ৫৮ নম্বর ওয়ার্ডে চম্পামণি মাতৃসদনে করোনা পরীক্ষাগারের সঙ্গে হবে ১০০ শয্যার হাসপাতাল। ওই ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর তৃণমূলের স্বপন সমাদ্দার পুরসভার সিদ্ধান্তে খুশি। খুশি স্থানীয়রাও। 

১১১ নম্বর ওয়ার্ডে টিবি হাসপাতালে হবে করোনা পরীক্ষাকেন্দ্র। সেখানকার বিদায়ী কাউন্সিলর সিপিএমের চয়ন ভট্টাচার্য যদিও পুরসভাকে ভরসা করতে পারছেন না।। চয়নবাবু বলেন, ‘ওদের কথায় আর কাজে মিল নেই। বিরোধীদের সঙ্গে কোনও আলোচনা করে না। শেষ পর্যন্ত হলে ভাল।’

কলকাতার অন্যতম প্রশাসক অতীন ঘোষ জানিয়েছেন, ‘এখন SSKM ও RG Kar মেডিক্যালে করোনা পরীক্ষা করাচ্ছে পুরসভা। কিন্তু আমরা করোনা পরীক্ষার জন্য নিজেদের পরিকাঠামো তৈরি করতে চাই। ICMR-এর অনুমতি পেলে প্রথমে অ্যান্টিবডি ও পরে করোনা পরীক্ষা হবে।’

বন্ধ করুন