বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাস্তায় টাকাভর্তি ব্যাগ পেয়ে ফেরালেন ২৩ বছরের ডেলিভারি বয়
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

রাস্তায় টাকাভর্তি ব্যাগ পেয়ে ফেরালেন ২৩ বছরের ডেলিভারি বয়

  • ব্যাগ খুলে পুলিশ বুঝতে পরে তার আসল মালিক লালমোহন দাসের। ট্যাংরার বাসিন্দা ওই ব্যক্তিকে ফোনে খবর দেন পুলিশ আধিকারিকরা।

লকডাউনে চাকরির হাহাকারের মধ্যে খাবার পৌঁছে দেওয়াকেই পেশা হিসাবে বেছেছিলেন ২৩ বছরের যুবক। চাহিদা থাকলেও সততার সঙ্গে আপস না করার নজির হয়ে রইলেন অজিত কর্মকার। রাস্তায় টাকাভর্তি ব্যাগ পেয়ে ফেরালেন তার আসল মালিককে। অজিতের সততায় মুগ্ধ কলকাতা পুলিশ তাঁকে পুরস্কৃত করার চিন্তা ভাবনা শুরু করেছে।

শনিবার বেলেঘাটা মেইন রোড দিয়ে খাবার নিয়ে গ্রাহকের ঠিকানার দিকে তখন ছুটছে অজিতের মোটরসাইকেল। সিআইটি মোড়ের কাছে হঠাৎ চোখে পড়ে একটি ব্যাগ। তুলে দখেন, তাতে রয়েছে বেশ কিছু দরকারি নথি আর ১০,২০০ টাকা। দেরি করেননি অজিত। সঙ্গে সঙ্গে কাছেই বেলেঘাটা থানায় পৌঁছে যান তিনি। পুলিশ আধিকারিকদের হাতে তুলে দেন সেই ব্যাগ।

ব্যাগ খুলে পুলিশ বুঝতে পরে তার আসল মালিক লালমোহন দাসের। ট্যাংরার বাসিন্দা ওই ব্যক্তিকে ফোনে খবর দেন পুলিশ আধিকারিকরা। রাস্তায় হারানো ব্যাগ - টাকা পাওয়া গেছে শুনে হন্তদন্ত হয়ে বেলেঘাটা থানায় ছোটেন তিনি। উপযুক্ত প্রমাণ দেখিয়ে সংগ্রহ করেন ব্যাগটি।

সততার এমন বিরল নজির উপস্থাপন করায় অজিতের হাতে শংসাপত্র তুলে দিয়েছে কলকাতা পুলিশ। সঙ্গে তাঁকে পুরস্কৃত করার জন্য নাম প্রস্তাব করা হবে বলেও জানানো হয়েছে। তবে এই নিয়ে বেশি কথা বলতে নারাজ অজিত। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘রাস্তায় এমন কিছু পেলে তো পুলিশকেই দেওয়া উচিত। অন্য কোনও কিছু মাথাতেই আসেনি।’

 

বন্ধ করুন