বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Calcutta High Court: ‘‌মুখ্যমন্ত্রী ভাল কাজ করছেন’‌, এজলাসে বসে মন্তব্য করলেন অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

Calcutta High Court: ‘‌মুখ্যমন্ত্রী ভাল কাজ করছেন’‌, এজলাসে বসে মন্তব্য করলেন অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। 

আজ, বৃহস্পতিবার প্রাথমিকে নিয়োগের একটি মামলার শুনানি ছিল। সেখানে সওয়াল–জবাবের সময় বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় রাজ্যের আইনজীবী ভাস্করপ্রসাদ বৈশ্যকে বললেন, মুখ্যমন্ত্রী ভাল কাজ করছেন। তাঁকে কেন খারাপ কথা বলব? বরং তাঁর মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হচ্ছে বলে দাবি করলেন বিচারপতি।

শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি মামলায় বারবার কড়া রায় দিয়েছেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। এবার তিনি ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গেলেন। আজ, বৃহস্পতিবার প্রাথমিকে নিয়োগের একটি মামলার শুনানি ছিল। সেখানে সওয়াল–জবাবের সময় বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় রাজ্যের আইনজীবী ভাস্করপ্রসাদ বৈশ্যকে বললেন, মুখ্যমন্ত্রী ভাল কাজ করছেন। তাঁকে কেন খারাপ কথা বলব? বরং তাঁর মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হচ্ছে বলে দাবি করলেন বিচারপতি। এই সওয়াল–জবাব পর্বে অনেকেই অবাক হয়ে গেলেন। যে বিচারপতি ঢাকি সমেত বিসর্জন দিয়ে দেবেন বলেছিলেন, আজ তিনিই এজলাসে বসে এমন মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইছেন। তাই অবাক সবাই।

ঠিক কী বলেছেন বিচারপতি?‌ কলকাতা হাইকোর্ট সূত্রে খবর, আজ প্রাথমিক নিয়োগের বিষয়ে একটি মামলার শুনানি চলছিল। তখনই বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, ‘‌মুখ্যমন্ত্রী ভাল কাজ করছেন। আমি কেন খারাপ কথা বলব? আমাকে বলতে বাধ্য করা হচ্ছে।’‌ এমনকী ঢাকি সমেত বিসর্জন দিয়ে দেব বলেছিলেন বিচারপতি। সেই মন্তব্য নিয়ে আজ তিনি ক্ষমা চেয়ে নেন। তবে বলেন, এটা পর্ষদের কাজকর্ম আমাকে বলতে বাধ্য করেছে।’‌

তারপর কী বললেন বিচারপতি?‌ এদিন সওয়াল–জবাব পর্বে রাজ্যের আইনজীবীকে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, ‘‌চন্দ্রিমাদিকে বলে দেবেন, আর কোনও মন্তব্য করব না। আমি কেন খারাপ মন্তব্য করব বলুন তো? মুখ্যমন্ত্রী তো ভাল কাজ করছেন।’‌ এরপরই রাজ্যের আইনজীবী ভাস্করপ্রসাদ বৈশ্য বলেন, ‘‌মামলার বক্তব্য শুনে আপনি যে কোনও নির্দেশ দিন। দয়া করে দল সম্পর্কে কিছু বলবেন না। আমি বিষয়টি চন্দ্রিমাদিকে বলব। মুখ্যমন্ত্রীর নজরে আনার চেষ্টা করব।’‌ অর্থাৎ বিচারপতি তাঁর মন্তব্যের মধ্য দিয়ে বুঝিয়ে দিলেন তিনি মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে কোনও কিছু বলেননি।

কুণাল ঘোষ নিয়ে কী বললেন বিচারপতি?‌ সদ্য তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক বলেছিলেন, কেউ দোষী হলে ঢেকে পাঠিয়ে শাস্তি দিন। অভিযোগ থাকলে প্রমাণ দিয়ে ব্যবস্থা নিন। কিন্তু শুধু কাউকে আক্রমণ করা উচিত নয়। এবার এই কুণাল ঘোষকে নিয়ে মুখ খোলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘‌কুণাল ঘোষের কথায় আমি খুব আনন্দ পাই। রোজই আমার বিরুদ্ধে কিছু কথা বলেন। এখন এই নিয়ে আমি কোনও মন্তব্য করতে চাই না। কিন্তু আমার মন্তব্যগুলির ভুল ব্যাখ্যা হয়ে যাচ্ছে।’‌

বন্ধ করুন