বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 21 July: ‘‌আপনাদের নেতারা কি উড়ে যাবেন?‌ অন্য দিন সভা করুন’‌, বিজেপিকে নির্দেশ হাইকোর্টের

21 July: ‘‌আপনাদের নেতারা কি উড়ে যাবেন?‌ অন্য দিন সভা করুন’‌, বিজেপিকে নির্দেশ হাইকোর্টের

অন্য দিন বিজেপিকে সভা করার নির্দেশ (ছবি সৌজন্যে এএনআই)

আগামী ২১ জুলাই উলুবেড়িয়ায় সভা ডেকেছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তৃণমূল কংগ্রেসের শহিদ সমাবেশের পাল্টা এই সভা ডাকা হয়েছিল। যার অনুমতি পুলিশ দেয়নি। তখন বিজেপি কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করে।

বিজেপির ২১ জুলাইয়ের সভা নিয়ে সকালেই প্রশ্ন তুলেছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি। আর বিকেলে অন্য দিন বিজেপিকে সভা করার নির্দেশ দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্য। আর ওই সভা নিয়ে যাবতীয় তথ্য তলব করলেন বিচারপতি। বুধবার সেই তথ্য দিতে বলা হয়েছে। বিজেপিকে জানাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, উলুবেড়িয়ায় তাদের কর্মসূচিতে কোন কোন নেতা উপস্থিত থাকবেন এবং ওই সভায় কত লোকের জমায়েত হতে পারে।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ আগামী ২১ জুলাই উলুবেড়িয়ায় সভা ডেকেছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তৃণমূল কংগ্রেসের শহিদ সমাবেশের পাল্টা এই সভা ডাকা হয়েছিল। যার অনুমতি পুলিশ দেয়নি। তখন বিজেপি কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করে। আজ, মঙ্গলবার সেই মামলার শুনানিতে বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্য বিজেপির আইনজীবীকে বলেন, ‘‌এই সভা ২১ জুলাই তারিখেই আয়োজন করতে হবে কেন? এটা তো রবীন্দ্র জয়ন্তী নয়। বিজেপি তো ২২ বা ২৩ জুলাইও সভার আয়োজন করতে পারে।’‌

বিজেপির আইনজীবীর কী বক্তব্য?‌ এই সভার গুরুত্ব নিয়ে প্রশ্ন করা হলে বিজেপির আইনজীবী জানান, দিল্লি থেকে নেতারা আসছেন। তাঁদের এই তারিখের কথা বলা হয়েছে। সভার সব প্রস্তুতি নেওয়াও হয়ে গিয়েছে। এই সভায় দু’হাজারের মতো লোক হবে। ১৫ দিন আগে সভার অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। আমাদের সন্ধ্যা ৬টায় সময় সভা করতে দিলেও অসুবিধা নেই।

তখন বিচারপতি কী বললেন?‌ এই বক্তব্য শুনে পাল্টা বিচারপতি প্রশ্ন করেন, ‘আপনাদের এই কর্মসূচির জন্য দিল্লি থেকে নেতারা আসছেন? আপনারা জানেন ওই দিন কলকাতায় বড় সমাবেশ রয়েছে। শহরের যান চলাচল নিয়ন্ত্রণে থাকবে। আপনাদের নেতারা কী ভাবে কলকাতা বিমানবন্দর থেকে হাওড়ার কর্মসূচিতে যাবেন? উড়ে যাবেন? একটি রাজনৈতিক দল কর্মসূচি করবে বলে অন্যরা করতে পারবে না, এটা যেমন হতে পারে না, তেমন সেদিনের বাস্তব পরিস্থিতিও তো বিচার করতে হবে। তাই অন্য দিন সভা করুন। আগামীকালই করুন। কেউ তো বারণ করছে না!’‌

বন্ধ করুন