বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কলকাতা পুরসভা নির্বাচন মামলার শুনানি শেষ, রায় স্থগিত রাখল হাইকোর্ট

কলকাতা পুরসভা নির্বাচন মামলার শুনানি শেষ, রায় স্থগিত রাখল হাইকোর্ট

কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

আগামী ১৯ ডিসেম্বর কলকাতা পুরসভার নির্বাচন। সেখানে এই রায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

সব পুরসভার নির্বাচন একসঙ্গে নয় কেন?‌ এই প্রশ্ন তুলে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করা হয়েছিল। আজ, শুক্রবার সেই মামলার শুনানি শেষ হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে। কিন্তু শুনানি শেষ হলেও রায় ঘোষণা করেনি আদালত। বরং রায় স্থগিত রাখল আদালত। আগামী ১৯ ডিসেম্বর কলকাতা পুরসভার নির্বাচন। সেখানে এই রায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

এদিন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব এবং বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে ওই মামলার শুনানি হয়। তখন অবশ্য অনেকেই মনে করছিলেন আজই রায়দান করতে পারেন বিচারপতিরা। কিন্তু বাস্তবে দেখা গেল, শুনানি শেষ হলেও রায় প্রকাশিত হল না। তা স্থগিত রাখা হয়েছে। এমনকী কবে তা প্রকাশ করা হবে তাও জানানো হয়নি।

এই মামলার হলফনামায় উল্লেখ করা হয়েছিল, রাজ্যের সব পুরসভায় একসঙ্গে ভোট করতে হবে। কলকাতা–সহ রাজ্যের পুরসভা নির্বাচনে ইভিএমের সঙ্গে ভিভিপ্যাট রাখতে হবে রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে। এই নিয়ে বিস্তারিত সওয়াল–জবাব শোনেন বিচারপতিরা। তবে রায় না দেওয়ায় টেনশন বেড়েছে আইনজীবী মহল থেকে শুরু করে রাজনৈতিক মহলের।

এদিন আদালতে রাজ্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, তাদের কাছে এম১ এবং এম২ ইভিএম রয়েছে। এই ইভিএম মেশিনে ভিভিপ্যাটের সুবিধা নেই। ভিভিপ্যাটের সুবিধা আছে এম৩ ইভিএম মেশিনে। সেগুলি লোকসভা এবং বিধানসভা নির্বাচনে ব্যবহার করা হয়। এই কথা শোনার পর বিচারপতিরা কোনও উত্তর দেননি। শুধু জানিয়েছেন, জনস্বার্থ মামলা এখানেই শেষ হচ্ছে। আর রায়দান স্থগিত রাখা হচ্ছে। যা নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

এই মামলার শুনানি নিয়ে বিজেপির আইনজীবী পিঙ্কি আনন্দ বলেন, ‘রাজ্য নির্বাচন কমিশনের হাতে ১৫ হাজারের বেশি ইভিএম আছে। কলকাতা পুরসভায় যদি সাত হাজার ইভিএম ব্যবহার করা হয় তাহলে হাতে থাকে বাকি ইভিএমগুলি। সেগুলি দিয়ে কেন অন্য পুরসভার ভোট করানো হল না?’ যদিও আজ আদালতে রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল সৌমেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‌কত দফায বাকি পুরসভাগুলির নির্বাচন করা যাবে তা আগামী ১৯ ডিসেম্বরের পর আদালতকে জানাতে পারবে রাজ্য।’‌

বন্ধ করুন