বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পরিষেবা শুরু করতে তৎপর মেট্রো, প্রত্যেক স্টেশনে থাকছে স্যানিটাইজেশন যন্ত্র
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

পরিষেবা শুরু করতে তৎপর মেট্রো, প্রত্যেক স্টেশনে থাকছে স্যানিটাইজেশন যন্ত্র

  • সূত্রের খবর, মেট্রো পরিষেবা চালু হলেও টোকেন নিয়ে যাত্রা করা আপাতত হবে না। স্পর্শের জেরে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা থাকায় ব্যবহার করা হবে না টোকেন।

অনলক ফোরে মেট্রো রেল পরিষেবা শুরুর অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্র। শনিবারই জারি হয়েছেন নতুন নির্দেশিকা। আর তার পরই চূড়ান্ত প্রস্তুতি শুরু করেছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ। রাজ্যের সঙ্গে কথা বলে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর থেকেই মেট্রো চালাতে তৈরি কর্তারা। তবে ৭ সেপ্টেম্বর রাজ্যে লকডাউন থাকায় ৮ সেপ্টেম্বর থেকে কলকাতায় শুরু হবে মেট্রো পরিষেবা। 

কলকাতা মেট্রো ও ইস্ট – ওয়েস্ট মেট্রোর প্রতিটি স্টেশনে কী নিয়মে ট্রেন চলবে তা ঠিক করতে এখন চরম ব্যস্ত মেট্রোর আধিকারিকরা। কী করে মেট্রোয় সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে চলছে তার পরিকল্পনাও। মেট্রো সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে প্রতিটি স্টেশনের জন্য আলাদা স্যানিটাইজেশন যন্ত্র কেনা হয়েছে। তা দিয়ে জীবাণুমুক্ত করা হয়েছে স্টেশনগুলি। পরিষেবা চালু হলে প্রতিদিন বেশ কয়েকবার জীবাণুমুক্ত করা হবে প্রতিটি স্টেশন। কতক্ষণ পর পর স্যানিটাইজেশন হবে তা নিয়ে অবশ্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি মেট্রো।

সূত্রের খবর, মেট্রো পরিষেবা চালু হলেও টোকেন নিয়ে যাত্রা করা আপাতত হবে না। স্পর্শের জেরে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা থাকায় ব্যবহার করা হবে না টোকেন। শুধুমাত্র স্মার্টকার্ডধারীরাই ব্যবহার করতে পারবেন মেট্রো পরিষেবা। কার্ড রিচার্জ করা যাবে মোবাইল ফোনের অ্যাপলিকেশনের মাধ্যমে। 

মেট্রো সূত্রের খবর, পরিষেবা কতক্ষণ অন্তর মিলবে তা নিয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে এব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে তারা। তবে পুরনো নিয়মে মেট্রো চলার সম্ভাবনা প্রায় নেই বললেই চলে। ধীরে ধীরে বাড়ানো হবে পরিষেবার সংখ্যা। এছাড়া ভিড় নিয়্ন্ত্রণের জন্য কলকাতা পুলিশ ও বারাকপুর পুলিশের কাছে সাহায্য চাইতে পারে মেট্রো কর্তৃপক্ষ। 

 

বন্ধ করুন