বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কমছে সময়ের ব্যবধান, অফিসটাইমে বাড়ানো হচ্ছে মেট্রো রেলের সংখ্যা
আরও বেশি পরিমাণে ট্রেন চালানো হবে। (ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

কমছে সময়ের ব্যবধান, অফিসটাইমে বাড়ানো হচ্ছে মেট্রো রেলের সংখ্যা

  • মেট্রো কর্তৃপক্ষের দাবি, রবিবার সকালের প্রথম মেট্রো ছাড়ার সময় এগিয়ে আনা হয়েছে। প্রত্যেক দিনের শেষ মেট্রোর সময় থাকছে রাত সাড়ে ৯টা। শনিবার–রবিবারের মেট্রোর সময়সূচিও একইরকম রাখা হচ্ছে। এই দু’দিন মেট্রোর সংখ্যা বাড়ছে না। আর ইস্ট–ওয়েস্ট মেট্রো পরিষেবাও অপরিবর্তিত রাখা হচ্ছে।

ইতিমধ্যেই বেড়েছে প্রথম এবং শেষ মেট্রোর সময়সীমা। বাকি ছিল অফিসটাইমে ঘন ঘন মেট্রো। এবার অফিস যাত্রীদের জন্য সুখবর নিয়ে এল মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। তাঁদের সুবিধার জন্য দুই মেট্রোর মধ্যে সময়ের ব্যবধান কমানো হচ্ছে বলে সূত্রের খবর। সময়ের ব্যবধান কমলে বাড়বে মেট্রো। ফলে অফিসযাত্রীদের আর বাড়তি সময় দাঁড়িয়ে থাকতে হবে না।

ঠিক কী জানা যাচ্ছে?‌ আজ, শনিবার কলকাতা মেট্রোর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এবার থেকে আরও বেশি পরিমাণে ট্রেন চালানো হবে। সকাল–সন্ধ্যায় নিত্যযাত্রীদের ভিড় সবচেয়ে বেশি হয়। তখন পাঁচ মিনিটের ব্যবধানেই মিলবে মেট্রো রেলের পরিষেবা। এতদিন সারাদিনে ২৮২টি মেট্রো চালানো হতো। এবার আগামী ১ জুলাই থেকে সেই সংখ্যা বেড়ে হবে ২৮৮। সোমবার থেকে শুক্রবার ১৪৪টি আপ এবং ডাউন লাইনে ১৪৪টি মেট্রো চালানো হবে। কবি সুভাষ স্টেশন থেকে দমদমের মধ্যে চলবে এই ২৮৮টি মেট্রো। ফলে পাঁচ মিনিট অন্তরই মিলবে মেট্রো।

কেন এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে?‌ মেট্রো সূত্রে খবর, দুটি কারণে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এক, অফিস টাইমে মেট্রোয় উপচে পড়া ভিড় ঠেকানো। দুই, আবার করোনাভাইরাস বাড়ছে। তার প্রভাব যেন মেট্রো রেলে না পড়ে। মেট্রোর সংখ্যা বাড়লে এই সমস্যা মিটে যাবে বলেই আশা করা হচ্ছে। এখন মেট্রো রেল আর লোকসানের মুখ দেখতে চায় না। আয় বেড়েছে, সেটা অব্যাহত রাখতেই এই পদক্ষেপ।

আর কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে?‌ মেট্রো কর্তৃপক্ষের দাবি, রবিবার সকালের প্রথম মেট্রো ছাড়ার সময় এগিয়ে আনা হয়েছে। প্রত্যেক দিনের শেষ মেট্রোর সময় থাকছে রাত সাড়ে ৯টা। শনিবার–রবিবারের মেট্রোর সময়সূচিও একইরকম রাখা হচ্ছে। এই দু’দিন মেট্রোর সংখ্যা বাড়ছে না। আর ইস্ট–ওয়েস্ট মেট্রো পরিষেবাও অপরিবর্তিত রাখা হচ্ছে।

বন্ধ করুন