বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > সংক্রমণ এড়াতে লকডাউনের পরে কলকাতা মেট্রোয় বন্ধ হতে পারে কুপন ব্যবস্থা
সংক্রমণে লাগাম দিতে মেট্রোরেল পরিষেবায় যাত্রীদের জন্য কুপনের বদলে স্মার্টকার্ড ব্যবহারের কথা ভাবছেন মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ।
সংক্রমণে লাগাম দিতে মেট্রোরেল পরিষেবায় যাত্রীদের জন্য কুপনের বদলে স্মার্টকার্ড ব্যবহারের কথা ভাবছেন মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ।

সংক্রমণ এড়াতে লকডাউনের পরে কলকাতা মেট্রোয় বন্ধ হতে পারে কুপন ব্যবস্থা

  • রেল বোর্ডের থেকে অনুমতি না আসা পর্যন্ত পরিষেবা চালু করা সম্ভব নয় বলে জানা গিয়েছে।

কলকাতায় করোনা সংক্রমণে লাগাম দিতে মেট্রোরেল পরিষেবায় যাত্রীদের জন্য কুপনের বদলে স্মার্টকার্ড ব্যবহারের কথা ভাবছেন মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ। তবে রেল বোর্ডের থেকে অনুমতি না আসা পর্যন্ত পরিষেবা চালু করা সম্ভব নয় বলে জানা গিয়েছে।

শুক্রবার নবান্নের প্রশাসনিক বৈঠকে আগামী ১ জুলাই থেকে কলকাতায় মেট্রো রেল পরিষেবা চালু করার বিষয়ে উৎসাহ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে তিনি জানিয়েছেন, ভিড় এড়াতে মেট্রোয় আসনসংখ্যার চেয়ে বেশি যাত্রী যেন না তোলা হয়। 

তবে মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, রেল বোর্ডের অনুমোদন না পেলে পরিষেবা চালু করা সম্ভব নয়। 

এ দিকে দীর্ঘ লকডাউনের সুযোগ নিয়ে মেট্রোয় হবহু প্রতীক্ষিত রক্ষণাবেক্ষণের বেশ কিছু কাজ সারা গিয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সেই সঙ্গে, করোনা সংক্রমণ রোধের চেষ্টায় টিকিট কাউন্টার, প্ল্যাটফর্ম ও মেট্রোর কামরায় ওঠার সময় যাত্রীদের সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলার জন্য বিভিন্ন চিহ্ন দাগিয়ে দেওয়ার কাজও সম্পূর্ণ হয়েছে। 

অন্য দিকে, জুলাই থেকে মেট্রো পরিষেবা চালু হলে সংক্রমণের হার লাফিয়ে বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন যাত্রীদের বড় অংশ। সেই সম্ভাবনার জেরেই আপাতত মেট্রোয় কুপনের পরিবর্তে স্মার্টকার্ড ব্যবহারে জোর দিতে চাইছে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে অতিরিক্ত স্মার্টকার্ডের বরাত দেওয়া হয়েছে বলে সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে। একই সঙ্গে যাত্রী সুরক্ষায় স্টেশনে মাস্ক ও স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখার কথাও ভাবছেন মেট্রোকর্তারা।

বন্ধ করুন