বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > বেহালায় নার্সকে পাড়াছাড়া করার হুমকি প্রতিবেশীদের
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

বেহালায় নার্সকে পাড়াছাড়া করার হুমকি প্রতিবেশীদের

  • অভিযোগ, প্রতিবেশীরা জানায়, হয় চাকরি চাকরি ছাড়তে হবে, নইলে পাড়া। কারণ নার্সের মাধ্যমে পাড়ায় করোনা ছড়াতে পারে।

কলকাতা লাগোয়া বেহালায় করোনাজয়ী নার্সকে একঘরে করার অভিযোগ প্রতিবেশীদের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, তাঁকে চাকরি ছাড়ার জন্য চাপ দিচ্ছেন প্রতিবেশীরা। না মানায় স্বামী-সন্তান-সহ একঘরে করে রাখা হয়েছে ওই করোনাযোদ্ধাকে। নানা ভাবে হেনস্থা করা হচ্ছে তাঁদের। সোমবার এই নিয়ে বেহালা থানার দ্বারস্থ হন তিনি। পুলিশ পরিবারটিকে নিরাপত্তার আশ্বাস দিয়েছে। 

জানা গিয়েছে, গত ১০ অগাস্ট করোনা আক্রান্ত হন আলিপুর কম্যান্ড হাসপাতালের ওই নার্স। তার পর তার পর থেকে বেহালার রায় বাহাদুর রোডের বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন তাঁর স্বামী ও ছেলে। যদিও তাঁদের কারও সংক্রমণ ধরা পড়েনি। গত ২০ অগাস্ট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন তিনি। এর পর থেকেই লাগাতার প্রতিবেশীদের হুমকির মুখে পড়তে হয় তাঁদের। 

অভিযোগ, প্রতিবেশীরা জানায়, হয় চাকরি চাকরি ছাড়তে হবে, নইলে পাড়া। কারণ নার্সের মাধ্যমে পাড়ায় করোনা ছড়াতে পারে। এমনকী ওই পরিবার পাড়ার দোকান থেকে যাতে জিনিসপত্র কিনতে না পারে সেজন্য নজরদারি শুরু হয়। সাফাইকর্মীকে বাড়িটি থেকে আবর্জনা সংগ্রহে বাধা দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। 

বিষয়টি স্থানীয় বেহালা থানায় জানান নার্স। এর পর পুলিশকর্মীরা এসে এলাকায় সতর্কতামূলক প্রচার চালান। অভিযোগ, তাতেও কাজ হয়নি। হুমকি চলছেই। সোমবার পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন নার্সের ছেলে। পুলিশের তরফে পরিবারটিকে নিরাপত্তার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। কেউ তাদের বাধা দিলে তার বিরুদ্ধে মহামারি আইনে মামলা রুজু হতে পারে বলে জানানো হয়েছে বেহালা থানার তরফে। 

 

বন্ধ করুন