বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > গার্ডেনরিচ গণধর্ষণকাণ্ডে গ্রেফতার তরুণীর ‘বন্ধু’, উদ্ধার লুঠের টাকার একাংশ
গার্ডেনরিচে গণধর্ষণকাণ্ডে গ্রেফতার তরুণীর ‘বন্ধু’, উদ্ধার লুঠের টাকার একাংশ। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
গার্ডেনরিচে গণধর্ষণকাণ্ডে গ্রেফতার তরুণীর ‘বন্ধু’, উদ্ধার লুঠের টাকার একাংশ। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

গার্ডেনরিচ গণধর্ষণকাণ্ডে গ্রেফতার তরুণীর ‘বন্ধু’, উদ্ধার লুঠের টাকার একাংশ

  • সন্দেহটা প্রথম থেকেই করেছিলেন গোয়েন্দারা।

সন্দেহটা প্রথম থেকেই করেছিলেন গোয়েন্দারা। সেইমতো গার্ডেনরিচ গণধর্ষণকাণ্ডে যুবতীর এক পরিচিতকে গ্রেফতার করা হল। কলকাতা পুলিশের এক শীর্ষ আধিকারিক বলেন, ‘আমরা আসগর শাহ নামে এক ব্যক্তিতে গ্রেফতার করেছি। তার বয়স ২৬-এর মতো। জেরায় দোষ কবুল করেছে সে। তদন্ত চলছে।’

গত মঙ্গলবার গার্ডেনরিচে বেলা ১২ টা থেকে দুপুর একটার মধ্যে সেই ঘটনা ঘটেছিল। সেই সময় বাড়িতে একাই ছিলেন তরুণী। অন্যদিনের মতো মঙ্গলবারও বাইরে থেকে তালা দিয়ে কাজ করতে গিয়েছিলেন তরুণীর বাবা-মা। সেই তালা ভাঙা না থাকায় প্রথম থেকেই পুলিশের সন্দেহ ছিল, কোনও পরিচিত ব্যক্তিই ঘটনায় জড়িত আছে। তারপর বৃহস্পতিবার আসগরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত ব্যক্তির বাড়ি আদতে বিহারের গয়ায়। কয়েক বছর ধরে গার্ডেনরিচেই ভাড়া থাকত। ইলেকট্রিশিয়ানের কাজ করত। ওই যুবকের সঙ্গে আড়াই বছর ধরে সম্পর্ক ছিল তরুণীর। কিন্তু পরিবারের আপত্তিতে তা ভেঙে যায়। তবে দু'জনের মধ্যে যোগাযাগ ছিল। ইতিমধ্যে আসগরের বাড়ি থেকে নগদ ১০ লাখ টাকা এবং সোনার গয়না উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশের এক আধিকারিক বলেছেন, ‘জেরায় অভিযুক্ত জানিয়েছে যে আগেও তরুণীর ফ্ল্যাটে গিয়েছিল সে। তার কাছে একটি ডুপ্লিকেট চাবিও ছিল। তা দিয়ে ঘটনার দিন ফ্ল্যাটে ঢুকেছিল। তারপর তরুণীকে ধর্ষণ করেছিল। আলমারি ভেঙে নগদ লুট করেছিল। কাটার জন্য যন্ত্রপাতি এনেছিল সে। কারণ বাড়িতে নগদ অর্থ আছে বলে আগে থেকেই জানত।’

গণধর্ষণের অভিযোগ হওয়ায় সেই ঘটনায় বাকি অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে কলকাতা পুলিশের বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট)। এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, ‘এখনও তদন্ত চলছে। তরুণী যা অভিযোগ করেছেন, তার ভিত্তিতে আমরা এগোচ্ছি। কী কারণে সেই কাজ করা হয়েছে এবং আরও কিছু বিষয় খতিয়ে দেখতে হবে।’

বন্ধ করুন