বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'বেয়াদপি' করলেই 'ওষুধ', অগস্টের প্রথম ৫ সম্পূর্ণ লকডাউনে কলকাতায় গ্রেফতার ৪০০০
সোমবারও সম্পূর্ণ লকডাউনে নজরদারি চালাচ্ছে পুলিশ (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
সোমবারও সম্পূর্ণ লকডাউনে নজরদারি চালাচ্ছে পুলিশ (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

'বেয়াদপি' করলেই 'ওষুধ', অগস্টের প্রথম ৫ সম্পূর্ণ লকডাউনে কলকাতায় গ্রেফতার ৪০০০

  • সোমবারও কড়া হাতে সম্পূর্ণ লকডাউন কার্যকর করছে পুলিশ।

কলকাতা : 'বেয়াদপি' করলেই কড়া দাওয়াই তৈরি ছিল। তাতে ভর করেই চলতি মাসের প্রথম পাঁচটি সম্পূর্ণ লকডাউনে অনায়াসে 'পাশ' করে গিয়েছে কলকাতা পুলিশ। আর 'কড়া শিক্ষকের' সঙ্গে 'বেয়াদপি' করায় ওই পাঁচদিনে ৪,০০০ জনের বেশি মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পাশাপাশি মাস্ক না পরার জন্য ২,৫০০ জনের বেশি মানুষের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

কলকাতা পুলিশের এক শীর্ষকর্তা বলেন, 'যদি পাঁচদিনের (সম্পূর্ণ লকডাউনের পাঁচদিন) গ্রেফতারি পরিসংখ্যান বিবেচনা করা হয়, তাহলে মনে হবে লকডাউনের দিনে কোনও সংযম দেখাচ্ছেন না কলকাতাবাসী। প্রতিটি লকডাউনে গ্রেফতারির সংখ্যা ৭০০ থেকে ৯০০-এর মধ্যে ঘোরাফেরা করেছে। আর মাস্ক না পরার জন্য ৩৫০ থেকে ৫০০ জনের মতো মানুষের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে।'

তবে শুধু আগে নয়, সোমবারও কড়া হাতে লকডাউন কার্যকর করছে পুলিশ। সকাল থেকেই শহরের বিভিন্ন প্রান্তে ব্যারিকেড করে নাকা চেকিং করা হচ্ছে। গাড়ি থামিয়ে চালকদের বাইরে বেরোনোর কারণ জানতে চাওয়া হচ্ছে। উপযুক্ত কারণ দর্শাতে না পারলে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে বা গ্রেফতারির 'ওষুধ' প্রয়োগ করা হচ্ছে। যাদবপুর এইট-বি, গল্ফগ্রিনের অলিগলিতে ড্রোন উড়িয়ে নজরদারি চালানো হয়। আর কড়া দাওয়াইয়ে উত্তর থেকে দক্ষিণ কলকাতা কার্যত ধূ ধূ করছে। বন্ধ আছে দোকানপাট। রাস্তায় গাড়ির সংখ্যাও তেমন নেই।

বন্ধ করুন