বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > মনের কষ্ট লুকিয়ে না রেখে আমাদের বলুন, অবসাদে সাহায্যের হাত বাড়াল কলকাতা পুলিশ
অধিকাংশ আত্মহত্যার পিছনেই গভীর মানসিক অবসাদের উপস্থিতি জানা গিয়েছে।
অধিকাংশ আত্মহত্যার পিছনেই গভীর মানসিক অবসাদের উপস্থিতি জানা গিয়েছে।

মনের কষ্ট লুকিয়ে না রেখে আমাদের বলুন, অবসাদে সাহায্যের হাত বাড়াল কলকাতা পুলিশ

  • সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার পিছনে মানসিক অবসাদের আভাস পেয়ে সতর্ক হল কলকাতা পুলিশ।

বলিউডের প্রতিশ্রুতিমান অভিনেভা সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার পিছনে মানসিক অবসাদের আভাস পেয়ে সতর্ক হল কলকাতা পুলিশ। টুইটারে যে কোনও রকম মানসিক সমস্যা সমাধানে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিনেল নগরপাল।

রবিবার সকালে মুম্বইয়ের বান্দ্রার আবাসন থেকে উদ্ধার হয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুতের দেহ। তারকার মৃত্যুসংবাদে শোকের ছায়া নেমেছে দেশজুড়ে। ঘটনার পিছনে মানসিক অবসাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে বলে প্রাথমিক সন্দেহ মুম্বই পুলিশের। যদিও তদন্ত সম্পূর্ণ না হলে এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছানো যাবে না। 

ভারতে গত কয়েক বছরে আত্মহত্যার হার উল্লেখজনক হারে বেড়েছে। জাতীয় অপরাধ খতিয়ান ব্যুরোর হিসেব অনুযায়ী, ২০১৮ সালে দেশে মোট ১,৩৪,৫১৬ জন আত্মঘাতী হন, যা ২০১৭ সালের তুলনায় ৩.৬% বেশি। অধিকাংশ আত্মহত্যার পিছনেই গভীর মানসিক অবসাদের উপস্থিতি জানা গিয়েছে। 

পেশাগত সমস্যা, ব্যক্তিগত সম্পর্ক, শিক্ষাগত উচ্চাকাঙ্ক্ষা ও নিদারুণ প্রতিযোগিতার মতো বিভিন্ন কারণে চরম অস্তিত্ব সংকট দেখা দেওয়ার জেরে গভীর অবসাদ শিকড় বিছিয়ে দিচ্ছে নাগরিক মনে। মানসিক চাপ সহ্য করতে না পেরে তাই অনেকে আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছেন। 

এই প্রবণতা থেকে শহরবাসীকে মুক্ত করতে এবার পথে নামল কলকাতা পুলিশ। সম্প্রতি কলকাতা পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা নিজস্ব টুইটার হ্যান্ডেলে আত্মঘাতী সুশান্ত সিং রাজপুতের ছবির পাশে প্রয়াত অভিনেতার ‘ছিঁছোড়ে’ ছবির সংলাপ উদ্ধৃত করে মানসিক অবসাদ থেকে মুক্তি পেতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। 

ওই পোস্টের ক্যাপশনে তিনি আবেদন জানিয়েছেন, ‘কথা বলুন। মনের ভিতরে যা কিছু আছে, তা কথার মাধ্যমে প্রকাশ করুন। সমস্ত আবেগ বেরিয়ে যেতে দিন। অন্ধকার সুড়ঙ্গের শেষ সব সময় আলো রয়েছে। কোনও রকম সমস্যা থাকলে ১০০ নম্বরে ডায়াল করুন। আমরা আপনাকে সাহায্যের জন্য অপেক্ষায় আছি।’

নগরপালের এই পোস্টকে স্বাগত জানিয়েছেন বেশ কিছু কলকাতাবাসী। সংকটকালে পুলিশের এই বন্ধুত্বপূর্ণ আবেদনের প্রশংসায় মুখর নেট দুনিয়াও।

 

বন্ধ করুন