পরিস্থিতি সামলাতে মোবাইল ফোনের শরণাপন্ন হতে হয় পুলিশকে।
পরিস্থিতি সামলাতে মোবাইল ফোনের শরণাপন্ন হতে হয় পুলিশকে।

হঠাতই বন্ধ লালবাজারের হেল্পনাইন, বিপদে কাজে লাগল মোবাইল

  • আচমকা সাড়া দেওয়া বন্ধ করল পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগের আপত্কালীন ফোন নম্বর। একই সঙ্গে অচল হল মেডিক্যাল এমার্জেন্সি হেল্পলাইনও।

হঠাতই সাড়া দেওয়া বন্ধ করল পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগের আপত্কালীন ফোন নম্বর। একই সঙ্গে অচল হল মেডিক্যাল এমার্জেন্সি হেল্পলাইনও।

মঙ্গলবার রাতে কলকাতা পুলিশের ১০০ হেল্পলাইন আচমকা অচল হয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করল। একই সঙ্গে অচল হল ১১২, ১০৯০ ও ১০৯১ হেল্পলাইনগুলিও। পুলিশ, স্বাস্থ্য ও প্রবীণ নাগরিকদের বিপদে ভরসা জোগানো এই তিন হেল্পলাইন হঠাত্ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় শহরবাসীর পাশাপাশি ফাঁপরে পড়ে কলকাতা পুলিশও।

লালবাজার কন্ট্রোলরুমে কর্তব্যরত এক আধিকারিক বলেন, ‘এগুলি সবই ভিএসএনএল ল্যান্ডলাইন। কী বিকল হয়েছে, সে সম্পর্কে আমাদের কোনও ধারণা নেই। অন্য কয়েকটি ফোন নম্বর নিয়েও আমরা সমস্যার মুখে পড়েছি।’

পরিস্থিতি সামলাতে মোবাইল ফোনের শরণাপন্ন হতে হয় পুলিশকে। বিকল্প মোবাইলফোন নম্বরগুলি সম্পর্কে প্রচার করতে সাহায্য নেওয়া হয় সোশ্যাল মিডিয়ার।

ওই দিন কলকাতা পুলিশের তরফে সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে জানানো হয়, ‘কোনও প্রযুক্তিগত কারণে লালবাজার কন্ট্রোল রুমের (১০০-সহ) সমস্ত ল্যান্ডলাইন নম্বর বর্তমানে অচল হয়ে পড়েছে। ওই সমস্ত নম্বর সচল না হওয়া পর্যন্ত কন্ট্রোল রুমে য়োগাযোগ করতে হলে ফোন করুন ৯৮৭৪৯০৩৪৬৫, ৯৪৩২৬১০৪৪৬, ৯৪৩২৬১০৪৪৩ ও ৯৪৩২৬২৪৩৬৫ নম্বরগুলিতে। বয়স্ক নাগরিকদের হেল্পলাইন: ৯৮৩০০৮৮৮৮৪, মেডিক্যাল হেল্পলাইন: ৯৮৩০০৭৯৯৯৯।’

বন্ধ করুন