বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > শ্যামবাজারের ফুটপাথে ঘণ্টার পর ঘণ্টা পড়ে রইলেন অসুস্থ বৃদ্ধ
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

শ্যামবাজারের ফুটপাথে ঘণ্টার পর ঘণ্টা পড়ে রইলেন অসুস্থ বৃদ্ধ

  • এলাকাবাসীরা জানিয়েছেন, বৃদ্ধের বাড়ি বাগবাজার এলাকায়। লকডাউনে তিনি ফুটপাথেই থাকতেন। স্থানীয়রাই দেখভাল করতেন তাঁর। সম্প্রতি তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন।

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে কলকাতার ফুটপাথে অসুস্থ অবস্থায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা পড়ে রইলেন এক বৃদ্ধ। সরকারি অ্যাম্বুল্যান্স এলেও ফিরে গেল কয়েকবার। অবশেষে স্থানীয় এক ব্যক্তির চেষ্টায় বেলা ২টো নাগাদ অ্যাম্বুল্যান্সে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় বৃদ্ধকে। স্থানীয়দের দাবি, বৃদ্ধের করোনার উপসর্গ রয়েছে। 

শ্যামবাজারে বিধান সরণির ওপর বেশ কিছুদিন ধরে পড়ে ছিলেন অসুস্থ ওই বৃদ্ধ। গত কয়েকদিন তাঁর পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বারবার জ্ঞান হারাচ্ছিলেন তিনি। এর পর শ্যামপুকুর থানা ও স্বাস্থ্য দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করেন স্থানীয়রা। অভিযোগ, স্বাস্থ্য দফতর ও কলকাতা পুলিশের অ্যাম্বুল্যান্স এলেও চলচ্ছক্তিহীন বৃদ্ধকে ধরে অ্যাম্বুল্যান্সে তুলতে রাজি হননি তাঁরা। 

এলাকাবাসীরা জানিয়েছেন, বৃদ্ধের বাড়ি বাগবাজার এলাকায়। লকডাউনে তিনি ফুটপাথেই থাকতেন। স্থানীয়রাই দেখভাল করতেন তাঁর। সম্প্রতি তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। 

বুধবার সকাল থেকে একাধিক অ্যাম্বুল্যান্স বৃদ্ধকে নিতে এসেও ফিরে যায়। অ্যাম্বুল্যান্স কর্মীরা স্থানীয়দের সাহায্য চাইলেও কেউ এগিয়ে আসেননি। এর পর মৃণাল রায় নামে স্থানীয় এক হকার কলকাতা পুলিশের কর্মীদের থেকে পিপিই চেয়ে নেন। বিছানার চাদরে শুইয়ে অ্যাম্বুল্যান্সে তোলা হয় বৃদ্ধকে। বেলা ২টোর সময় যখন বৃদ্ধকে নিয়ে হাসপাতালে রওনা দেয় অ্যাম্বুল্যান্স ততক্ষণে কেটে গিয়েছে ৮ ঘণ্টা। 

 

বন্ধ করুন