বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাতের শহরে বন্দুক–সহ ট্র‌্যাফিক সার্জেন্ট, কেন এমন বিজ্ঞপ্তি জারি লালবাজারের?
রাতের কলকাতা ট্র‌্যাফিক সার্জেন্ট।
রাতের কলকাতা ট্র‌্যাফিক সার্জেন্ট।

রাতের শহরে বন্দুক–সহ ট্র‌্যাফিক সার্জেন্ট, কেন এমন বিজ্ঞপ্তি জারি লালবাজারের?

  • আগে কলকাতা পুলিশের ট্র‌্যাফিক বিভাগে কর্মরত সার্জেন্টরা আর্মস ব্যবহার করতেন। সেটা অবশ্য দিনের বেলা। তবে তা বন্ধ অনেকদিন। এবার রাতে নিরাপত্তায় সার্জেন্টদের অস্ত্র ব্যবহারের অনুমতি দিলেন কলকাতা পুলিশ কমিশনার। বুধবার রাতেই এই বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে তা কার্যকর করতে বলা হয়েছে। 

এবার রাতের কলকাতার নিরাপত্তা আরও বাড়াতে চলেছে লালবাজার। তাই রাতে এবার থেকে ট্র‌্যাফিক পুলিশ শুধু থাকবে না শহরে। বরং তার সঙ্গে যুক্ত হবেন ট্র‌্যাফিক সার্জেন্টও। এমনকী রাতে ডিউটিরত ট্র‌্যাফিক সার্জেন্ট রাখতে পারবেন সাইড আর্মস এবং অ্যামিউনিশন। এই বিষয়ে ইতিমধ্যেই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে লালবাজার।

ঠিক কী লেখা আছে বিজ্ঞপ্তিতে?‌ লালবাজার সূত্রে খবর, বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘ট্র‌্যাফিক সার্জেন্টরা এবার থেকে রাতের কলকাতার ডিউটিতে থাকবেন। একইসঙ্গে তাঁরা একপাশে রাখতে পারবেন বন্দুক। সেগুলি সংগ্রহ করতে হবে লোকাল থানা থেকে। থানার ওসি এবং ট্র‌্যাফিক গার্ডকে এই কাজ করা নিশ্চিত করতে হবে।’‌

কেন এমন বিজ্ঞপ্তি জারি হল?‌ লালবাজার সূত্রে খবর, রাতের কলকাতাকে আরও নিরাপদ রাখতেই এই বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে। ডিউটি করার সময় একজন পুলিশ কর্মীর কাছে সাইড আর্মস থাকলে মনোবল অনেকখানি বেড়ে যায়। তাছাড়া অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে সঙ্গে সঙ্গে অ্যাকশন নিতে পারবেন রাতে কর্তব্যরত ট্র‌্যাফিক সার্জেন্ট। আগে লোকাল থানাকে খবর দিয়ে ফোর্স চাইতে হতো। তাতে দেরি হতো।

উল্লেখ্য, আগে কলকাতা পুলিশের ট্র‌্যাফিক বিভাগে কর্মরত সার্জেন্টরা আর্মস ব্যবহার করতেন। সেটা অবশ্য দিনের বেলা। তবে তা বন্ধ অনেকদিন। এবার রাতে নিরাপত্তায় সার্জেন্টদের অস্ত্র ব্যবহারের অনুমতি দিলেন কলকাতা পুলিশ কমিশনার। বুধবার রাতেই এই বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে তা কার্যকর করতে বলা হয়েছে। এখন দেখার আজ রাতে অস্ত্র–সহ ট্র‌্যাফিক সার্জেন্ট দেখা যায় কিনা।

বন্ধ করুন