বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌শান্তি বজায় রাখুন’‌, অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের কোর্টের সামনে বিক্ষোভে আইনজীবীরা
কলকাতা হাইকোর্ট (ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

‘‌শান্তি বজায় রাখুন’‌, অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের কোর্টের সামনে বিক্ষোভে আইনজীবীরা

  • এমনকী বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসের সামনে বিক্ষোভ–ঘেরাও করা হয়।

মঙ্গলবার আইনজীবীদের মধ্যে হাতাহাতি হয়েছিল। আর বুধবার কলকাতা হাইকোর্টে বিক্ষোভ আছড়ে পড়ল। এই বিক্ষোভ হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের ১৭ নম্বর এজলাসে। এজলাস বয়কট করতে চেয়ে বিক্ষোভ দেখান আইনজীবীদের একাংশ। এমনকী বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসের সামনে বিক্ষোভ–ঘেরাও করা হয়। ওই এজলাসের ভিতরে কোনও আইনজীবীকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না বলে খবর।

কেন এই বিক্ষোভ হচ্ছে?‌ এই ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্ট চত্বর উত্তাল হয়ে ওঠে। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাস ঘেরাও করা বিক্ষোভ দেখানোয় উত্তেজনা চরমে উঠেছে। সূত্রের খবর, তৃণমূল কংগ্রেসের ল’সেলের আইনজীবীরা বিক্ষোভে সামিল হয়েছেন। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় পর পর সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। আর নিজের এক্তিয়ারের বাইরে গিয়ে ডিভিশন বেঞ্চের বিরুদ্ধে কেন সরব হয়েছেন?‌ এই প্রশ্ন তুলে প্রতিবাদ করে বিচারপতির এজলাস বয়কট করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের আইনজীবী সেলের সদস্যরা। এজলাসের বাইরে চিৎকার করতে থাকেন তাঁরা।

এদিকে রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে এসএসসি দুর্নীতি মামলায় সিবিআইয়ের কাছে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ মঙ্গলবার দেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তারপর নাটকীয়ভাবে ডিভিশন বেঞ্চে সিঙ্গল বেঞ্চের সেই রায় খারিজ হয়ে যায়। সেখানে বলা হয়, পার্থবাবুকে এখনই সিবিআইয়ের কাছে যেতে হবে না। সমস্ত এসএসসি সংক্রান্ত মামলায় সিবিআইয়ের তদন্তে একদিনের স্থগিতাদেশও দেয় কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।

অন্যদিকে সিঙ্গল বেঞ্চের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাস ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেসের ল’সেলের আইনজীবীরা। বিচারপতি এজলাসে আসার আগে এজলাসের সামনে হাতাহাতিও হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে। এই ঘটনা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্ট চত্বরে তুমুল শোরগোল চলছে।

এসএসসি’‌র গ্রুপ ডি, গ্রুপ সি, এসএলএসটি— সব মিলিয়ে মামলার সংখ্যা কম নয়। এইসব ক্ষেত্রেই নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের সিঙ্গল বেঞ্চ এই সমস্ত মামলার শুনানিতে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। আর আজ এই বিক্ষোভ নিয়ে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় আইনজীবীদের শান্তি বজায় রাখার অনুরোধ করে বলেন, ‘‌আপনাদের সমস্যা কী, বলুন আমাকে। আমি আর ৫–৭ মিনিট সময় দেব। আপনাদের যা দাবি বলুন। আমি তা শুনানির অংশ হিসাবে নেব না। এবং তা রেকর্ডেও থাকবে না। আপনাদের অনুরোধ করছি শান্তি বজায় রাখুন।’‌

বন্ধ করুন