বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বুড়ো জ্ঞান দিচ্ছে, অভিষেকের পাশেই থাকব, নাম না করে কল্যাণকে বিঁধে আসরে মদন
মদন মিত্র। (ছবি-ইউটিউব)
মদন মিত্র। (ছবি-ইউটিউব)

বুড়ো জ্ঞান দিচ্ছে, অভিষেকের পাশেই থাকব, নাম না করে কল্যাণকে বিঁধে আসরে মদন

  • নাম না করে একদিকে দলের বিশ্বস্ত সৈনিক মদন যেমন কল্যাণকে বিঁধলেন। তেমনি মমতা ও অভিষেক সম্পর্কেও নিজের বিশ্বস্ততার পরীক্ষা দিলেন তিনি।

তৃণমূলের অন্দরে কার্যত নজিরবিহীন ঘটনা। একেবারে নাম করে দলের সেকেন্ড ইন কমান্ড অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করছেন সাংসদ কল্য়াণ বন্দ্যোপাধ্যায়।অন্যদিকে কল্যাণকে নিশানা করে পালটা কটাক্ষ করছেন কুণাল ঘোষ। এনিয়ে দ্বৈরথ কার্যত চরমে ওঠে। দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় প্রকাশ্যে এই ধরনের কাদাছোঁড়াছুড়ি না করার নির্দেশ দিয়েছেন। তবে এবার গোটা ঘটনাক্রমের মাঝে বাড়তি মাত্রা যোগ করে আসরে নামলেন কামারহাটার তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র। কোনও রাখঢাক না করেই অভিষেকের পাশে দাঁড়ালেন মদন। সেই সঙ্গেই তীব্র ভাষায় নাম না করে কল্যাণকে বিঁধলেন মদন মিত্র। 

মদন মিত্রের কটাক্ষ, কয়েকজন বুড়ো রাতারাতি খুব জ্ঞান দিচ্ছেন। মার খাওয়ার সময় তো এঁরা ছিলেন না কখনও। তৃণমূল পার্টির মাথায় রয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পরেই অভিষেক রয়েছেন। আমি অভিষেকের পাশেই দাঁড়াব। অভিষেক ফালতু কথা বলেননি। ও নিজের এলাকায় কোভিড মডেল তৈরি করতে চেয়েছে। করে দেখিয়েছে। এর সঙ্গেই মদন মিত্রের সংযোজন, এই পার্টিটা নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। আর এই পার্টিতে থেকেই কেউ যদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জিন টেস্ট করে, মদন মিত্র তা বরদাস্ত করবে না। নাম না করে একদিকে দলের বিশ্বস্ত সৈনিক মদন যেমন কল্যাণকে বিঁধলেন। তেমনি মমতা ও অভিষেক সম্পর্কেও নিজের বিশ্বস্ততার পরীক্ষা দিলেন তিনি। 

বন্ধ করুন