বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'বয়স হয়েছে, ভুলভাল বকলেও মেনে নিতে হয়!' কলেজ ফেস্ট নিয়ে সৌগতকে খোঁচা মদনের
মদন মিত্র। (ছবি-ইউটিউব)

'বয়স হয়েছে, ভুলভাল বকলেও মেনে নিতে হয়!' কলেজ ফেস্ট নিয়ে সৌগতকে খোঁচা মদনের

  • মদন মিত্র জানিয়েছেন,আমি একথা বলব না তৃণমূল কংগ্রেস গুণ্ডামি করে টাকা তুলছে, আমি বলব সৌগত রায় যে যুক্তিটা বলছেন তার মধ্যে একটা ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি, ম্যাথেমেটিক্স আছে। কিন্তু সেটা তিনি টাইমে না বলে বিয়েটা হয়ে যাওয়ার পরে বলেন বরবউ ভালো হয়নি।

কলেজ ফেস্ট আয়োজনের ক্ষেত্রে বিপুল টাকা ব্যয় করা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তৃণমূলের সাংসদ সৌগত রায়। দমদমের সাংসদ সৌগত রায় প্রশ্ন তুলেছেন, 'এত টাকা আসে কোথা থেকে? ৩০, ৫০ লাখ টাকা কে দিয়েছে? হাওয়া থেকে তো আসে না।' সৌগত রায়ের প্রশ্নকে ঘিরে এবার পালটা খোঁচা দিলেন তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র।

মদন মিত্র বলেন, ‘সৌগত রায় সিনিয়র হয়েছেন। তিনি বলেছেন সোনু নিগম বা শ্রেয়া ঘোষালকে আনতে গেলে… বড় প্রমোটার… এটা যেমন ঠিক। কিন্তু প্রতিবাদটা সেই সময় না করে পর্দার আড়ালে চলে যান। বলে আবার পর্দার সামনে আসেন। তিনি পার্টির সিনিয়র নেতা। বয়স হলে সিনিয়ররা যা বলেন, ভুলভাল বকলেও মেনে নিতে হয়। মেনে নেওয়া উচিত। বয়স্করা যা বলবেন সেটা মেনে নেওয়া উচিত। হরিপাল, ক্যানিং, সুন্দরবন, দিনহাটা থেকে আসা ছাত্র টিফিনের পয়সা জমিয়ে, বাড়িতে পায়রা না পুষে ৫০ লাখ দিয়ে শ্রেয়া ঘোষালকে এনেছে সেটা মেনে নেওয়া যাবে না।’ 

মদন মিত্র বলেন, ‘সবাই যদি হিসাবপত্র ঠিকঠাক দেখান তবে ঠিক আছে। কোনও ছাত্রনেতা যদি বলেন আমার টাকা থেকে ২০ লাখ টাকা দিচ্ছি। তবে আমি একথা বলব না তৃণমূল কংগ্রেস গুণ্ডামি করে টাকা তুলছে, আমি বলব সৌগত রায় যে যুক্তিটা বলছেন তার মধ্যে একটা ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি, ম্যাথেমেটিক্স আছে। কিন্তু সেটা তিনি টাইমে না বলে বিয়েটা হয়ে যাওয়ার পরে বলেন, বর বউ ভালো হয়নি।’

 

বন্ধ করুন