বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মদন মিত্রের ছেলের বিরুদ্ধে ফেসবুকে বধূ নির্যাতনের অভিযোগ
মদন মিত্র ও পুত্রবধূ স্বাতী রায়।
মদন মিত্র ও পুত্রবধূ স্বাতী রায়।

মদন মিত্রের ছেলের বিরুদ্ধে ফেসবুকে বধূ নির্যাতনের অভিযোগ

  • ২০১৯ সালে তাঁকে শ্বশুরবাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয় বলে দাবি করেছেন স্বাতী। এর পর তাঁকে মদন মিত্রের পরিবারের থেকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্র ও তাঁর ছেলের বিরুদ্ধে বধূনির্যাতনের অভিযোগ তুললেন পুত্রবধূ স্বাতী। ফেসবুকে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে স্বাতী রায় দাবি করেছেন, তাঁকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন মদন মিত্র। যেজন্য কলকাতা ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন তিনি। পুত্রবধূ বাড়ি ছেড়েছেন বলে স্বীকার করলেও, নির্যাতনের ব্যাপারে কিছু জানা নেই বলে দাবি করেছেন মদন মিত্র।

ফেসবুকে স্বাতী রায় বলেন, ২০১৪ সালের রাজ্যের তৎকালীন পরিবহণমন্ত্রী মদন মিত্রের বড় ছেলে স্বরূপ মিত্রের সঙ্গে বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ের কয়েকদিন পর থেকেই তিনি বুঝতে পারেন স্বামী মানসিক ভাবে অসুস্থ। প্রচুর ঘুমের ওষুধ খান, মদ খান। এমনকী তাঁকে লাগাতার শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন স্বরূপবাবু। মদন মিত্র ও তাঁর স্ত্রী কয়েকবার বাধা দিলেও তেমন লাভ হয়নি।

২০১৯ সালে তাঁকে শ্বশুরবাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয় বলে দাবি করেছেন স্বাতী। এর পর তাঁকে মদন মিত্রের পরিবারের থেকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। যার জেরে তাঁকে কলকাতা ছাড়তে হয় বলে দাবি করেছেন স্বাতী। এমনকী হতাশায় তিনি আত্মহত্যা পরিকল্পনা করছিলেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

নির্যাতনের অভিযোগ নিয়ে কোনও মন্তব্য না করলেও মদনবাবু জানিয়েছেন, ‘২ বছর আগে ও বাড়ি ছেড়ে চলে গিয়েছে। কয়েকদিন আগেও ওকে দক্ষিণেশ্বরের বাড়ির ছাদে আমার নাতির সঙ্গে খেলতে দেখেছি। হঠাৎ কী হলো বলতে পারব না।’ তাঁর প্রশ্ন, ‘নির্যাতন হয়ে থাকলে থানায় অভিযোগ হল না কেন? তবে স্বামী - স্ত্রীর ব্যাপারে আমি তেমন জানি না। রাজনীতি নিয়ে ব্যস্ত থাকি। খোঁজ নিয়ে বলতে পারবো।’ 

 

বন্ধ করুন