বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > কঙ্গনার Y+ ক্যাটাগরির কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা: টুইটযুদ্ধে মাতলেন মহুয়া, বাবুল, নুসরত
তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। ফাইল ছবি
তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। ফাইল ছবি

কঙ্গনার Y+ ক্যাটাগরির কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা: টুইটযুদ্ধে মাতলেন মহুয়া, বাবুল, নুসরত

  • কঙ্গনার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন ১১-১২জন জওয়ান ও একজন অফিসার। কঙ্গনাই প্রথম অভিনেতা যিনি এরকম Y+ নিরাপত্তা পাচ্ছেন।

বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়তকে Y+ ক্যাটাগরির কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা দেওয়া নিয়ে মঙ্গলবার টুইটারে প্রশ্ন তোলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। তিনি সরাসরি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে টুইটে লেখেন, ‘ভারতে প্রতি ১ লক্ষ জনসংখ্যা পিছু পুলিশকর্মীর সংখ্যা ১৩৮ জন। যা বিশ্বের ৭১টি দেশের তালিকায় পিছন দিক থেকে পঞ্চম। সে দেশে একজন বলিউড টুইটার সেলিব্রিটি Y+ শ্রেণির নিরাপত্তা পাবেন কেন? পরিকাঠামোর এর থেকে ভাল ব্যবহার আর কীই বা হতে পারে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীমশাই?’

আর এর পর টুইটেই এর পাল্টা প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তিনি তৃণমূলকে বিঁধতে সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে কটাক্ষ করেন। গতকালই টুইটে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী লিখেছেন, ‘‌‘‌অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে কম্যান্ডো কভার কেন? কঙ্গনা তো কিছু অপ্রিয় সত্যি কথা বলে শিব সেনার রোষের মুখে পড়েছে, তাই সিকিউরিটি দেওয়া। কিন্তু ভাইপোর সিকিউরিটি কি সত্যি কথা ‘ঢাকতে’?’

এ নিয়েই বেশ সরগরম নেট–দুনিয়া। কেউ কেউ মহুয়া মৈত্রর টুইটকে সমর্থন জানিয়ে সরব হয়েছেন, যেমন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। তিনিও রোজ ভ্যালি প্রসঙ্গ টেনে কটাক্ষ করেছেন বাবুলের। আবার কেউ বাবুল সুপ্রিয়র টুইটকে ঘিরে তৃণমূলকে পাল্টা কটাক্ষ করার সুযোগের সদ্‌ব্যবহার করছেন।

উল্লেখ্য, কঙ্গনার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন ১১-১২জন জওয়ান ও একজন অফিসার। কঙ্গনাই প্রথম অভিনেতা যিনি এরকম Y+ নিরাপত্তা পাচ্ছেন। তবে কঙ্গনার এই নিরাপত্তা পাওয়াতে অসন্তুষ্ট মহারাষ্ট্র সরকার। রাজ্যের গৃহমন্ত্রী অনিল দেশমুখ বলেন যে কঙ্গনা তো মুম্বই ও মহারাষ্ট্রকে অপমান করেছে। এটা দলের বিষয় নয়। বিজেপি কেন কঙ্গনাকে সমালোচনা না করে সমর্থন করছে, সেই প্রশ্ন করেন।

বন্ধ করুন