বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাজ্য সরকারি চাকরি করে কেন্দ্রীয় হারে DA চাইব তা তো হয় না: মমতা

রাজ্য সরকারি চাকরি করে কেন্দ্রীয় হারে DA চাইব তা তো হয় না: মমতা

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যে গরমেন্ট এত মানবিক, সেই গরমেন্ট নিয়ে ভাববেন না। রাজ্য সরকারের পে কমিশন রাজ্য সরকারের পে কমিশন অনুসারে চলে। ষষ্ঠ বেতন কমিশন যে টাকা সুপারিশ করেছে আমরা দিয়েছি। কিন্তু আপনারা যদি বলেন কাজ করবেন রাজ্যের আর কেন্দ্রীয় সরকারের হারে DA দিতে হবে। তা তো হয় না।

কাজ করবেন রাজ্যের আর কেন্দ্রীয় হারে ডিএ দিতে হবে, তা তো হয় না। মঙ্গলবার বিকেলে আলিপুর আদালতে ঋষি অরবিন্দের মূর্তি উন্মোচন অনুষ্ঠানে গিয়ে এমনই মন্তব্য করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে এদিন মমতা বলেন, ঋষি অরবিন্দকে নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেছেন। তাই আমি কিছু বলব না।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি অধিকার কাড়ার পক্ষে নই, আমি অধিকার দেওয়ার পক্ষে। জেনুইন যে অধিকারটা দেওয়া যায়। যেটা আইনত স্বীকৃত। আমাদের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোয় ভাগ আছে। রাজ্য সরকার তার নীতি অনুসারে চলে, কেন্দ্র তার আর্থিক কাঠামো অনুসারে চলে। কেন্দ্রীয় সরকারের রিজার্ভ ব্যাঙ্ক আছে। রাজ্য সরকারের নেই। রাজ্য সরকারের টাকা ছাপানোর ক্ষমতাও নেই। আগে অনেকরকম কর আদায় হত। এখন একটাই কর, GST. পুরো টাকাটা কেন্দ্র তুলে নিয়ে যায়। তার যতটা আমাদের দেওয়া হবে বলা হয়েছিল ততটা দেওয়া হয় না’।

মমতার দাবি, ‘আমি যখন বিরোধী দলে ছিলাম আমি দেখতাম, শিক্ষকরা মাইনে পায় না এক তারিখে। ১৫ তারিখ... ২০ তারিখ, কখনও ৩ মাস, ৬ মাস মাইনে পেত না। সরকারি কর্মচারীরা পেত না। টাইমে পেনশন পেত না। আজ আমি গর্ব করে বলতে পারি, এত ধার করে রেখা যাওয়া সত্বেও আমরা কিন্তু অনেকটাই ধার শোধ করেছি। আমরা কিন্তু ১ তারিখে মাইনেটা দিই’।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যে গরমেন্ট এত মানবিক, সেই গরমেন্ট নিয়ে ভাববেন না। রাজ্য সরকারের পে কমিশন রাজ্য সরকারের পে কমিশন অনুসারে চলে। ষষ্ঠ বেতন কমিশন যে টাকা সুপারিশ করেছে আমরা দিয়েছি। কিন্তু আপনারা যদি বলেন কাজ করবেন রাজ্যের আর কেন্দ্রীয় সরকারের হারে DA দিতে হবে। তা তো হয় না। সেন্ট্রাল স্কুল আলাদা মাইনে পায়, স্টেটের স্কুল আলাদা মাইনে পায়। স্টেটের স্ট্রাকচার আলাদা। সেন্ট্রালের স্ট্রাকচার আলাদা। আমার যদি ক্ষমতা থাকে, আমি ভালোবেসে দিই, নিশ্চই দেব। সিপিএমের সময় দেওয়া হয়েছিল ৩৩ শতাংশ। আমরা দিয়েছি ১০৬ শতাংশ। ২০১৯-এর ষষ্ঠ বেতন কমিশনের পুরোটাই আমরা দিয়েছি। এবার আপনারা বলুন তো যে সরকারটা এত মানবিক, একদিকে স্বাস্থ্যসাথী চলছে, একদিকে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার চলছে, একদিকে বিনা পয়সায় স্কুল চলছে, স্কুলের ড্রেসটাও চলছে, ১০০০ টাকা পেনশনও চলছে, জয় জোহারও চলছে, ফ্রিতে রেশনও চলছে, আর কত করতে পারে একটা সরকার?’

 

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

মঙ্গলে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হবে ৫ জেলায়, জারি সতর্কতা, এবার আরও বাড়বে গরম? অনুপমের বিয়ের খবর শুনেই বইছে কটাক্ষের বন্যা, ভুক্তভুগী শ্রীময়ী বললেন কী কী? EPL 2023 (West Ham United vs Brentford) Live Updates: অন্ধ্র ক্রিকেট সংস্থাকে কাঠগড়ায় তুলেছেন, পালটা তদন্ত শুরু হনুমার বিরুদ্ধে ‘আপনাকে তাড়া করেছে?’ নামের গেরোয় পিংলার বিধায়ককে হাসপাতালেই নাগড়ে ফোন অগ্নাশয়ের ক্যানসারে ভুগছিলেন পঙ্কজ! কী বলছেন অনুপ জালোটা-হরিহরণ মা-মামিমার বনিবনা হচ্ছে না! অশান্তির মাঝেই বোন আরাধ্যাকে নিয়ে মুখ খুললেন নভ্যা সাভারকার হয়ে উঠতে জেলে নিজেকে বন্দি করে রাখেন রণদীপ! লেখেন, ‘আমি ২০ মিনিটও…’ লোহার বিম তুলতে গিয়ে উল্টে গেল হাইড্রোলিক ক্রেন! দুর্ঘটনা কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে খোদাইয়ের সময় অলৌকিক রাম লালা, ছবি শেয়ার করলেন অরুণ যোগীরাজ

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.