বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌২০২৪ সালে কিছুতেই বিজেপি ক্ষমতায় আসবে না’‌, জানিয়ে দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (HT_PRINT)

‘‌২০২৪ সালে কিছুতেই বিজেপি ক্ষমতায় আসবে না’‌, জানিয়ে দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো

  • বাংলা উন্নয়নের পথে। মানুষের সঙ্গে থেকেই আমাদের কাজ করতে হবে। যে মানুষ পরিষেবা পাচ্ছেন না, কেন পাচ্ছেন না, তার কাছে পরিষেবা পৌঁছে দিতে হবে। পঞ্চায়েত স্তরে আরও বেশি কাজ করতে হবে। পুরসভায় আরও কাজ করতে হবে।

বিজেপি ২০২৪ সালে কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসতে পারবে না। এবার দ্ব্যর্থহীন ভাষায় এই ভবিষ্যদ্বানী করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ, বৃহস্পতিবার দলের বর্ষপূর্তির দিন নয়া তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠকে এই কথাই বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী ১০ মে থেকে আবার প্রশাসনিক বৈঠক করা হবে জানালেন তিনি।

ঠিক কী বলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো?‌ আজ, নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠান সেরে তৃণমূল ভবনে আসেন দলনেত্রী। সেখানে শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করেন। তারপর সাংবাদিক বৈঠক করে তিনি বলেন, ‘‌২০২৪ সালে কিছুতেই বিজেপি ক্ষমতায় আসবে না। ওঁর সব প্রশ্নের উত্তর আমি দেব না। তবে একটা কথা ওঁকে জিজ্ঞাসা করতে চাই, পেট্রপণ্য–ওষুধের দাম রোজ বাড়ছে। মানুষের পকেট থেকে টাকা কাটছে সেগুলি কী কাটমানি না ছাঁটমানি। ওঁকে জিজ্ঞেস করুন কাটমানির সংজ্ঞা কী? ওরা রোজ মিথ্যে কথা বলে। রোজ বারবার একই কথা বলা মিথ্যেচার। ভ্রষ্টাচারের রাজনীতি করে বিজেপি। এক বছর পরে এসে তো অমিত শাহের মুখ লুকোনো উচিত।’‌

এই কথা যখন তিনি বলছেন তখন রাজ্যে উপস্থিত কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এরপরই তিনি একটি কর্মসূচি ঘোষণা করেন। সেখানে তৃণমূলনেত্রী বলেন, ‘রাজ্য সরকার ৫ মে থেকে ১০ মে এই একমাস বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মানুষের কাছে পৌঁছবে। পশ্চিম মেদিনীপুর যাব ১০ মে। সেখানে একটা প্রশাসনিক বৈঠক হবে। ১১ মে বেলা ১২টায় একটি দলীয় বৈঠক করব। তারপর ঝাড়গ্রামে একটি প্রশাসনিক বৈঠক করব। ১২ মে বেলা ১২টায় ঝাড়গ্রাম স্টেডিয়ামে দলীয় বৈঠক করব। তার পর কলকাতায় ফিরে আসব।’‌ এই বৈঠক থেকেই নতুন বার্তা দিতে পারেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলে খবর।

কিভাবে মানুষের কাজ করতে হবে?‌ এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌বাংলা উন্নয়নের পথে। মানুষের সঙ্গে থেকেই আমাদের কাজ করতে হবে। যে মানুষ পরিষেবা পাচ্ছেন না, কেন পাচ্ছেন না, তার কাছে পরিষেবা পৌঁছে দিতে হবে। পঞ্চায়েত স্তরে আরও বেশি কাজ করতে হবে। পুরসভায় আরও কাজ করতে হবে। আজকের দিনে তৃতীয়বারের জন্য শপথ নিয়েছিলাম। তাই আজকের দিনে মা–মাটি–মানুষকে কৃতজ্ঞতা জানাই। আমাদের কর্মীরা আমাদের ভরসা।’‌

বন্ধ করুন