বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আত্মপ্রচার নয়, দলের প্রচারে নেতা-কর্মীদের মনোযোগী হতে বললেন মমতা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

আত্মপ্রচার নয়, দলের প্রচারে নেতা-কর্মীদের মনোযোগী হতে বললেন মমতা

  • সঙ্গে মমতা জানিয়েছেন, দলের বিবাদ দলের মধ্যেই মিটিয়ে ফলতে হবে। কোনও ভাবেই সেই বিবাদ প্রকাশ্যে আনা চলবে না। এই নিয়ে বলার সময় কোচবিহারের ২ নেতা রবীন্দ্রনাথ ঘোষ ও উদয়ন গুহকে ভর্ৎসনা করেন মমতা।

তৃণমূলের নবগঠিত রাজ্য কমিটির বৈঠকে দলের একাধিক নেতার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে বার্তা দিলেন, আত্মপ্রচার বাদ দিয়ে দলের প্রচার করতে হবে নেতাকর্মীদের। দলের বিবাদ নিয়ে দলের বাইরে মুখ খুলতেও বারণ করেছেন মমতা।

এদিন তৃণমূলের নতুন অস্থায়ী কার্যালয়ে বসে রাজ্য কমিটির প্রথম বৈঠক। এদিনই প্রথম এই ভবনে আসেন মমতা। দীর্ঘ বৈঠকে দলের নেতাদের পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রস্তুতিতে কোমর বেঁধে নেমে পড়ার নির্দেশ দেন মমতা। জানান, নিজের প্রচার ছেড়ে দলের প্রচারে মন দিতে হবে নেতাকর্মীদের। গত ১১ বছরে সরকারের সাফল্য তুলে ধরতে হবে জনতার সামনে। সঙ্গে যে সমস্ত মানুষ এখনো সরকারি সুবিধা পাননি তাদের কাছে সুবিধা পৌঁছে দিতে উদ্যোগী হতে হবে।

সঙ্গে মমতা জানিয়েছেন, দলের বিবাদ দলের মধ্যেই মিটিয়ে ফলতে হবে। কোনও ভাবেই সেই বিবাদ প্রকাশ্যে আনা চলবে না। এই নিয়ে বলার সময় কোচবিহারের ২ নেতা রবীন্দ্রনাথ ঘোষ ও উদয়ন গুহকে ভর্ৎসনা করেন মমতা। বলেন, আপনারা তো দলটাকেই তুলে দেবেন। আপনারা একে অপরের সঙ্গে লড়াই করা বন্ধ করুন। নইলে দরকারে আমি জেলা থেকে নেতা তুলে আনব।

মমতা বলেন, পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে সমস্ত জেলা ও ব্লক কমিটি ভেঙে দিয়ে নতুন করে তা গঠন করা হবে। সেজন্য আগামী ২০ মে থেকে সুপারিশ গ্রহণ করবে দল। সেই সুপারিশের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত হবে।

অন্য দলের থেকে কেউ তৃণমূলে যোগদান করতে চাইলে তাঁকে নিয়ম মেনে আবেদন করতে হবে। সেই আবেদন জেলায় জেলা কমিটি বা রাজ্যে রাজ্য কমিটি বিবেচনা করবে। ভুলত্রুটি হয়ে থাকলে মানুষের কাছে ক্ষমা চাওয়া নির্দেশ দিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী।

 

বন্ধ করুন