দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

দিল্লি থেকে আত্মবিশ্বাস কুড়াতে হচ্ছে মমতাকে, কিন্তু শেষ রক্ষা হবে না: দিলীপ ঘোষ

  • এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘দিল্লি নির্বাচনের ফল নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেশি উত্সাহিত হওয়ার কারণ নেই। কারণ ওখানে (পশ্চিমবঙ্গ) মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ভোট হবে।

দিল্লিতে বিজেপির হারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উচ্ছ্বাসকে দিল্লিতে দাঁড়িয়ে কটাক্ষ করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। মঙ্গলবার তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তৃণমূলের আত্মবিশ্বাস তলানিতে ঠেকেছে। তাই দিল্লি – ঝাড়খণ্ড দেখিয়ে দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা করার চেষ্টা করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সংসদের অধিবেশন চলায় বর্তমানে দিল্লিতে রয়েছেন মেদিনীপুরের সাংসদ তথা রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখান থেকেই তিনি বিজেপির হারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উচ্ছ্বাসকে তীব্র কটাক্ষ করেন।

এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘দিল্লি নির্বাচনের ফল নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেশি উত্সাহিত হওয়ার কারণ নেই। কারণ ওখানে (পশ্চিমবঙ্গ) মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ভোট হবে। লোকসভা নির্বাচনের আগেও আমরা কয়েকটি রাজ্য হেরেছিলাম। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের মানুষ দেখিয়ে দিয়েছে তারা বিজেপির সঙ্গেই রয়েছেন।‘

আক্রমণ আরও তীব্র করে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘এখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আত্মবিশ্বাস ভেঙে গিয়েছে। উনি দিল্লি – ঝাড়খণ্ড দেখিয়ে ভাবছেন আত্মবিশ্বাস ফেরাবেন। কিন্তু সেটা সম্ভব হবে না। ওদের সঙ্গে গুন্ডা আছে আর পুলিশ আছে। মানুষ সেটা মেনে নিচ্ছেন না। তাই মানুষ বার বার তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভোট দিচ্ছে। যেখানে ভোট হচ্ছে সেখানে তৃণমূল হারছে।‘

তৃণমূল নেত্রীকে রাজ্য বিজেপি সভাপতির প্রশ্ন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের যদি এতই আত্মবিশ্বাসী তাহলে ১৫টি পুরসভা ও ২টি করপোরেশনের ভোট আটকে রেখেছেন কেন?’

দিলীপ ঘোষের দাবি, ‘মমতা ব্যানার্জির আত্মবিশ্বাস নেই, তার কর্মীদের ওপর ভরসা নেই বলেই জেল থেকে কাউকে কাউকে ছাড়িয়ে নিয়ে আসতে হচ্ছে ভোটে লড়ার জন্য। আমরা বলে দিয়েছি ১৯-এ হাফ আর ২১-এ সাফ। পশ্চিমবঙ্গ সেদিকেই যাচ্ছে।‘

বলে রাখি, দিল্লিতে বিজেপির হারে মঙ্গলবার বাঁকুড়ায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেন, ‘কেজরিওয়ালের জয়ে আমি সত্যিই খুশি।’



বন্ধ করুন