বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ছাত্রছাত্রীদের সভায়ও ‘ভুল’-এর তত্ত্ব খাড়া করলেন মমতা, বললেন ‘শুধরে নিতে হবে’

ছাত্রছাত্রীদের সভায়ও ‘ভুল’-এর তত্ত্ব খাড়া করলেন মমতা, বললেন ‘শুধরে নিতে হবে’

সোমবার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে বক্তব্য রাখছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, ‘কাজ করতে গেলে লোকে ভুল করে। সেটা শুধরে নেওয়া দরকার। রাস্তায় হাঁটতে গেলে আমরা হোঁচট খাই না? হোঁচট খেলে পায়ে একটু লাগে। পরে সেটাকে ঠিক করে নিতে হয়। দেখে হাঁটতে হয়। যদি কোনও ভুল ভ্রান্তি কেউ করে তা শুধরে নেওয়া হবে।

ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে স্মার্টফোন বিতরণ অনুষ্ঠানেও মুখ্যমন্ত্রীর মুখে উঠে এল নিয়োগ দুর্নীতির প্রসঙ্গ। একই সঙ্গে নাম না করে বিরোধীদের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ তুললেন তিনি। সোমবার কলকাতার ভরা নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে ছাত্রছাত্রীদের সামনেও রাজনীতির বাইরে বেরোতে পারলেন না মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন মমতা তাঁর সরকারের ১১ বছরের কাজের খতিয়ান তুলে ধরেন পড়ুয়াদের সামনে। এর পর তিনি বলেন, ‘কাজ করতে গেলে লোকে ভুল করে। সেটা শুধরে নেওয়া দরকার। রাস্তায় হাঁটতে গেলে আমরা হোঁচট খাই না? হোঁচট খেলে পায়ে একটু লাগে। পরে সেটাকে ঠিক করে নিতে হয়। দেখে হাঁটতে হয়। যদি কোনও ভুল ভ্রান্তি কেউ করে তা শুধরে নেওয়া হবে। তার জন্য আইন আইনের পথে চলবে’।

রোজ গোলাপ ও একটি করে ছবি পাঠানো হবে শুভেন্দুকে, আজ থেকে কর্মসূচি শুরু তৃণমূলের

এর পরই বিরোধীদের আক্রমণের পথে হাঁটেন তিনি। বলেন, ‘ছাত্রছাত্রীদের সামনে আমার বলতে খারাপ লাগছে। আমি দুঃখিত। কিন্তু কিছু লোক যারা বাংলাকে ভালোবাসে না। সারাক্ষণ কুৎসা-চক্রান্ত – অপপ্রচার। সব তথ্য সত্য নয়। তথ্য যাচাই করে নেবেন। সব সময় চেষ্টা করবেন পজিটিভ করার জন্য’।

মমতার ব্যাখ্যা, ‘আমাদের ব্রেনে অনেক সেল আছে। আমরা যখন রাগারাগি করি, আমরা যখন খারাপ কথা ভাবি, তখন আমাদের অনেক সেল নষ্ট হয়ে যায়। আজ পর্যন্ত ব্রেনে কত সেল আছে কেউ জানে না। তাই সব সময় খোলামেলা মনে থাকুন’।

রাজ্যের দ্বাদশ শ্রেণিতে পাঠরত সমস্ত ছাত্রছাত্রীকে সরকার স্মার্টফোন কেনার জন্য এককালীন ১০,০০০ টাকা করে অনুদান দেয়। এদিন মঞ্চে মমতা জানান, এখনো পর্যন্ত ১৭ লক্ষ ছাত্রছাত্রীকে এই টাকা দিয়েছে তাঁর সরকার।

 

বন্ধ করুন