বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেন থেকে দেশে ফেরা পড়ুযাদের সঙ্গে কথা বলবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা
১৬ মার্চ ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্রে ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের সঙ্গে মুখোমুখি হবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি - পিটিআই) (PTI)

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেন থেকে দেশে ফেরা পড়ুযাদের সঙ্গে কথা বলবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা

  • ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের মমতা কী বার্তা দেবেন, তা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে।

কেন্দ্রের অপারেশন গঙ্গার ফলে ইউক্রেন থেকে দেশে ফিরতে সক্ষম হয়েছে ভারতীয় পড়ুয়ারা। তবে এরই মাঝে বিভিন্ন সময়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ইউক্রেন ইস্যুতে সুর চড়িয়েছেন বিরোধীরা। ইউক্রেন থেকে পড়ুয়াদের দেশে ফেরানোর বার্তা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছিলেন মমতা। প্রাথমিক ভাবে এই ইস্যুতে ঐক্যের কথা বললেও পরবর্তীতে সুর চড়িয়েছিলেন মমতা। এই আবহে এবার ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের সঙ্গে কথা বলার সময় মমতা কী বার্তা দেন, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে জল্পনা।

জানা গিয়েছে, আগামী ১৬ মার্চ ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্রে পড়ুয়াদের সঙ্গে মুখোমুখি হবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জেলা শাসকদের মাধ্যমে দেশে ফেরা পড়ুয়াদের কাছে ১৬ মার্চ ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্রে আসার আবেদন পাঠানো হয়েছে। পড়ুয়াদের ক্ষুদিরাম অনুশীল কেন্দ্র পর্যন্ত নিয়ে আসার জন্য প্রশাসনের তরফে বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এদিকে দেশে ফিরেও ভারতীয় পড়ুয়াদের চিন্তার অন্ত নেই। ইউক্রেনে থাকাকালীন ছিল প্রাণের ভয়, আর এখন ভবিষ্যতের ভয়। পড়াশোনা শেষ না হলে কী হবে, এই আশঙ্কায় পড়ুয়া এবং অভিভাবকরা।

উল্লেখ্য, ২৪ ফেব্রুয়ারি আচমকা ইউক্রেন দখল করতে হামলা চালায় রাশিয়া। সেই সময় সেদেশে পড়াশোনা করা প্রায় ২০ হাজার ভারতীয় আটকে পড়ে। এদেন মধ্যে বাংলার ৩০০ পড়ুয়াও ছিল। তাদেরকে ইউক্রেন থেকে পার্শ্ববর্তী দেশগুলিতে নিয়ে গিয়ে সেখান থেকে বিমানে করে দেশে ফেরানো হয়। তবে এই অভিযানের মাঝেও কেন্দ্রের সমালোচনায় সরব হয়েছিল বিরোধীরা। বিভিন্ন সময়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পড়ুয়াদের কাতর আর্তি পোস্ট করে মোদী সরকারকে বিঁধেছেন রাহুল গান্ধী, প্রিয়াঙ্কা গান্ধীরা। তবে শেষ পর্যন্ত সকল ভারতীয়কেই নিরাপদে ইউক্রেন থেকে ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয় কেন্দ্র।

বন্ধ করুন