বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌দয়া করে দেশকে বাঁচান’‌, একুশের মঞ্চ থেকে সুপ্রিম কোর্টকে আর্জি মমতার
২১ জুলাইয়ের শহিদ স্মরণ সমাবেশ। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
২১ জুলাইয়ের শহিদ স্মরণ সমাবেশ। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

‘‌দয়া করে দেশকে বাঁচান’‌, একুশের মঞ্চ থেকে সুপ্রিম কোর্টকে আর্জি মমতার

  • একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে তুলোধনা করেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

এবার সরাসরি ২১ জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে সুপ্রিম কোর্টের কাছে আর্জি জানালেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে তুলোধনা করেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। সবমিলিয়ে জমজমাট হয়ে উঠেছে ২১ জুলাইয়ের শহিদ স্মরণ সমাবেশ। তিনি বলেন, ‘‌দয়া করে দেশকে বাঁচান। স্বতঃপ্রণোদিতভাবে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য কোর্টকে অনুরোধ করছি। পিকে, অভিষেকের ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে।’‌ এই মন্তব্য করে একদিকে পেগাসাস অন্যদিকে সুপ্রিম কোর্টের দিকে বল ঠেললেন তিনি বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

এদিন তৃণমূলনেত্রী শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে বক্তৃতা শুরু করেন। সেখানেই তিনি বলেন, ‘‌পেগাসাসের নামে আমার ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে। কারও সঙ্গে কথা বলতে পারছি না। মোদীজি আপনাকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করছি না। আমাদের রাজনীতিতে একটা নীতি আছে। কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে ব্যবহার করছেন আপনি আর অমিত শাহ। যতটা নীচে নামা সম্ভব আপনি নেমেছেন। যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোকে নষ্ট করছে বিজেপি। গণতন্ত্রের কণ্ঠরোধ করছে বিজেপি। গণতন্ত্রের বদলে গোয়েন্দাগিরি চলছে।’‌

রীতিমতো দাবির সুরে তিনি বলেন, ‘‌আমাদের ফোনে নজরদারি চলছে। আমি চাইলেও চিদম্বরম, শরদ পাওয়ার, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে পারছি না। ফোনে নজরদারি চালাচ্ছে। মন্ত্রীর ফোন, বিচারপতির ফোনে নজরদারি চলছে।’‌ তাই এই বিষয়ে তিনি সুপ্রিম কোর্টকে হস্তক্ষেপ করতে আর্জি জানালেন। অর্থাৎ আগামীদিনে এই ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারকে তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিম কোর্টে নিয়ে যাবে তা একপ্রকার স্পষ্ট বলে মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন