বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Mamata's English Book in Kolkata Book Fair: '১১২ নটআউট', এবারের বইমেলায় ইংরেজিতে প্রকাশ হতে পারে মমতার ১১৩তম বইটি

Mamata's English Book in Kolkata Book Fair: '১১২ নটআউট', এবারের বইমেলায় ইংরেজিতে প্রকাশ হতে পারে মমতার ১১৩তম বইটি

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (পিটিআই) (HT_PRINT)

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের 'কবিতা বিতান' বইটি এবারের বইমেলায় প্রকাশিত হবে ইংরেজিতে। তাঁর ‘কবিতা বিতান’ কাব্যগ্রন্থের জন্য এর আগে মমতা বাংলা আকাদেমি পুরষ্কার পেয়েছেন। 

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের 'কবিতা বিতান' বইটি এবারের বইমেলায় প্রকাশিত হবে ইংরেজিতে। শুধু তাই নয়, এবারের বইমেলায় মুখ্যমন্ত্রীর আরও বেশ কয়েকটি বই প্রকাশ করা হবে বলে জানা গিয়েছে। ছোটদের জন্য লেখা বই এবং সমকালীন ইস্যুর উপর রাজনৈতিক প্রবন্ধের বই প্রকাশ করা হবে এবারে। এবছর কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলায় থিম কান্ট্রি স্পেন। এই আবহে মঙ্গলবার রাজধানী দিল্লিতে স্পেনের রাষ্ট্রদূতের বাসভবনে সাংবাদিক বৈঠক করে পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ড। সাংবাদিক বৈঠকে গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিব চট্টোপাধ্যায়দের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন স্পেনের রাষ্ট্রদূত জোস মারিয়া রিডাও ডমিনগুয়েজ।

সাংবাদিক সম্মেলনে গিল্ড কর্তা ত্রিদিববাবু বলেন, 'এই বছর কবিতা বিতানের ইংরেজি অনুবাদ প্রকাশিত হবে। কাজ চলছে এটুকু আমি জানি। আশা করছি বেরোবে।' এদিকে অপর গিল্ড কর্তা সুধাংশু দে বলেন, 'বইমেলা হলেই তাঁর (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) নতুন বই বের হয়। এই বছরও বেশ কিছু বই প্রকাশিত হবে। তবে মোট সংখ্যা এখনই বলা যাচ্ছে না। এমনিতেও আজ পর্যন্ত তাঁর ১১২টি বই প্রকাশিত হয়েছে। এই বছর আরও কিছু বই যুক্ত হবে।' উল্লেখ্য, এর আগে বাংলা আকাদেমি পুরস্কার পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীকে তাঁর ‘কবিতা বিতান’ কাব্যগ্রন্থের জন্য এই পুরস্কার দেওয়া হয়েছে রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের তরফে। সেই কাব্যগ্রন্থই এবার ইংরেজিতে আসতে চলেছে।

আগামী ৩১ জানুয়ারি থেকে ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সল্টলেকের বইমেলা প্রাঙ্গনে বসবে কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলার আসর। এদিকে এবারের কলকাতা বইমেলায় বাংলাদেশের ৭১ জন প্রকাশক যোগ দেবেন। বাংলাদেশের জন্য আলাদা প্যাভিলিয়ন থাকবে। গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিববাবু জানিয়েছে, বইমেলার সবচেয়ে বড় প্যাভিলিয়ন বাংলাদেশকেই দেওয়া হয়। বইমেলায় অন্যবারের মতো রাশিয়া আছে। আছে ব্রিটেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, ফ্রান্স, ইতালি, অস্ট্রেলিয়া, কিউবা, অন্য ল্যাটিন অ্যামেরিকার দেশগুলি। থাইল্যান্ড এই প্রথমবার কলকাতা বইমেলায় অংশ নিচ্ছে বলে জানান সংগঠক সুধাংশু দে। এবারের বইমেলার প্রতিটি অনুষ্ঠান ডিজিটাল মাধ্যমে সম্প্রচারিত হবে বলে জানা গিয়েছে। এদিকে বইমেলায় এবার এশিয়াটিক সোসাইটি পুরনো পুঁথির একটি স্টল দেবে বলেও জানান সুধাংশুবাবু।

এদিকে ভারতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, বইমেলায় স্পেনের প্যাভিলিয়ন হবে অভিনব। পরিবেশের কথা ভেবে, পুনরায় ব্যবহার করা যায়, এমন সব জিনিস দিয়ে প্যাভিলিয়ন তৈরি করা হচ্ছে। স্পেন থেকে প্রচুর সাহিত্যিক ও প্রকাশক আসতে চলেছেন কলকাতায়। ভারতীয় প্রকাশকদের সঙ্গে তাঁরা আলোচনায় বসবেন।

বন্ধ করুন